স্পোর্টস

সাড়ে ৮০০ কোটি রুপি জিতল বিসিসিআই

ক্রীড়া ডেস্ক: ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) প্রথম দিককার কমিশনার ছিলেন ললিত মোদি। যিনি দুর্নীতির দায়ে বরখাস্ত হয়েছিলেন। সে সময় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) বিরুদ্ধে একটি দুর্নীতি মামলা করেছিলেন তিনি। তবে লাভ হয়নি তার। শেষ পর্যন্ত এ মামলায় জিতল বিসিসিআই। শুধু জয়লাভই নয়, ৮৫০ কোটি রুপিও অর্জন করল সৌরভের নেতৃত্বাধীন বোর্ড। বর্তমান  আর্থিক মন্দার বাজারে এটাকে অনেক বড় অর্জনই দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের জন্য।

আইপিএল কমিশনার থাকার সময়ে ললিত মোদি ভারত ছাড়া বহির্বিশ্বে টুর্নামেন্টের সম্প্রচার স্বত্বের জন্য ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস গ্রুপের সঙ্গে চুক্তি করেছিলেন। প্রায় ৮০০ কোটি টাকার সেই চুক্তিটি হয়েছিল পুরোপুরি বিসিসিআইকে অন্ধকারে রেখে। চুক্তির বিষয়টি পুরোপুরি একাই দেখেছিলেন তিনি। পরে অবশ্য ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস গ্রুপের সঙ্গে ললিত মোদির এ চুক্তিতে দুর্নীতির গন্ধ পান তখনকার ভারতীয় বোর্ড সেক্রেটারি এন শ্রীনিবাসন। ওই সময়ের বিসিসিআই সিইও সুন্দর রমণের সঙ্গে আলোচনার পর, তিনি ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস গ্রুপের কাছ থেকে আইপিএল সম্প্রচারের স্বত্ব কেড়ে নেন। এর সঙ্গে মোদির আইপিএল কমিশনারের পদও চলে য়ায়। পরে বিসিসিআইয়ের এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে সম্প্রচারকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস গ্রুপ।

রায় ১০ বছর পর সেই মামলার নিষ্পত্তি মঙ্গলবার করল ভারতের সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত ট্রাইবুন্যাল। তিন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতির ট্রাইবুন্যালে ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস গ্রুপের সঙ্গে বিসিসিআইয়ের চুক্তিভঙ্গের সিদ্ধান্ত বহাল রাখা হয়েছে। সে সঙ্গে জানানো হয়েছে, এসক্রো অ্যাকাউন্টে (তৃতীয় কোনো ব্যক্তি বা ট্রাস্টের জিম্মায়) থাকা ৮০০ কোটি রুপি সাত বছরের সুদসহ ব্যবহার করতে পারবে ভারতীয় বোর্ড।

ললিত মোদির বিরুদ্ধে এবার বিসিসিআইয়ের আইনজীবী ফৌজদারি মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..