সারা বাংলা

সাতক্ষীরায় জলাবদ্ধতা নিরসনে চার ইউনিয়নের মানুষের মানববন্ধন

প্রতিনিধি, সাতক্ষীরা: সাতক্ষীরায় জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি পেতে সদর উপজেলার চারটি ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ পানি নিষ্কাশনের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি ও মানববন্ধন করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে ভুক্তভোগী এসব পানিবন্দি মানুষ এ কর্মসূচি পালন করেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না করে শহরের মধ্য দিয়ে বয়ে যাওয়া প্রাণসায়ের খাল খননের আগেই খালে বেড়িবাঁধ দেওয়ায় সাতক্ষীরা সদর উপজেলার চারটি ইউনিয়ন লাবসা, বল্লী, ঝাউডাঙ্গা ও আগরদাঁড়ির লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। ওই এলাকার পানি নিষ্কাশন না হওয়ায় বাড়িঘর, ফসলি জমি, মাছের ঘের, পুকুর, বিল পানিতে তলিয়ে গেছে। গবাদিপশু, হাঁস-মুরগি রাখার জায়গা নেই। পানিতে তলিয়ে গেছে পাকা রাস্তা। ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে চারটি ইউনিয়নের প্রায় সব গ্রামের মানুষের।

তারা বলেন, এ অবস্থায় মানবেতর জীবনযাপন করছে জলাবদ্ধতায় পানিবন্দি মানুষ। শুকনো মৌসুমের আগেই প্রাণসায়র খাল খননের টেন্ডার হলেও তখন খাল খনন করা হয়নি। বর্ষা মৌসুমে খাল খননের নামে চারটি ইউনিয়নের লক্ষাধিক মানুষকে ভোগান্তিতে ফেলা হয়েছে। অনতিবিলম্বে সাতক্ষীরার প্রাণসায়ের খালের ওপর দেওয়া বাঁধ কেটে দেওয়ার দাবি জানায় মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারী ক্ষতিগ্রস্তরা।

এ সময় বক্তারা আরও বলেন, ‘আমরা জেলা প্রশাসক ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছি। জলাবদ্ধতায় পানিবন্দি মানুষের কথা ভেবে দ্রুত পানি নিষ্কাশনের দাবি জানাচ্ছি।’

এ সময় নাহিদ হাসানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মো. ইলিয়াস হোসেন, সোহাগ খান, আবদুর রাজ্জাক ও বিকাশ দাস প্রমুখ। পানিবন্দি চারটি ইউনিয়নের পাঁচ শতাধিক মানুষ অবস্থান কর্মসূচি ও মানববন্ধনে অংশ নেন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..