প্রচ্ছদ প্রথম পাতা বাজার বিশ্লেষণ

সাত কার্যদিবসে ডিএসইএক্স সূচক কমেছে ২০৩ পয়েন্ট

রুবাইয়াত রিক্তা: পুঁজিবাজারে গতকাল সূচকের টানা পতন হয়েছে। এ নিয়ে গত সাত কার্যদিবস ধরে পতন চলছে। সর্বশেষ সাত কার্যদিবসের মধ্যে ছয় দিন সূচকের পতন হয়। মাঝে একদিন উত্থান হয়। ছয় কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান সূচক কমেছে ২০৩ পয়েন্ট বা প্রায় চার শতাংশ। একদিন বেড়েছে মাত্র ১৩ পয়েন্ট। এছাড়া বাকি দুই সূচকও পতনে ছিল। এ সাত দিনে বাজার মূলধন কমেছে ১১ হাজার ৬০২ কোটি টাকা। এ সময়ে প্রায় প্রতিদিনই ৬০ শতাংশের বেশি কোম্পানি দরপতনে ছিল। লেনদেন ৫০০ কোটি টাকা থেকে ৩০০ কোটি টাকায় নামলেও গতকাল লেনদেন বেড়ে ফের ৪০০ কোটি টাকার ঘরে উঠে আসে। তবে বিক্রির চাপে গতকাল লেনদেন বেড়েছে। সব খাতেই ছিল দরপতন। তথ্য ও প্রযুক্তি এবং বিমা খাত তুলনামূলক ভালো অবস্থানে ছিল।
মোট লেনদেনের ২১ শতাংশ বা ৯২ কোটি টাকা লেনদেন হয় ওষুধ ও রসায়ন খাতে। এ খাতে ৭৫ শতাংশ কোম্পানির দরপতন হয়। কয়েক দিন ধরে বৃদ্ধির পর গতকাল সংশোধন হয় এ খাতে। জেএমআই সিরিঞ্জের সাড়ে ১১ কোটি টাকা লেনদেন হয়। দরপতন হয় চার টাকা ২০ পয়সা। সিলকো ফার্মার প্রায় ১০ কোটি টাকা ও বীকন ফার্মার ৯ কোটি টাকা লেনদেন হয়। দরপতনে ছিল কোম্পানি দুটি। এছাড়া ওয়াটা কেমিক্যালের সাড়ে ৯ কোটি টাকা লেনদেনের পাশাপাশি দরপতন হয় ১৪ টাকা ১০ পয়সা। ১৬ শতাংশ লেনদেন হয় প্রকৌশল খাতে। এ খাতে ৫৬ শতাংশ কোম্পানি দরপতনে ছিল। ন্যাশনাল পলিমারের প্রায় ৯ কোটি টাকা লেনদেন হয়। দরপতন হয় প্রায় ৯ টাকা। মুন্নু জুট স্টাফলার্সের পৌনে আট কোটি টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ১০০ টাকা। টানা ছয় কার্যদিবস ধরে শেয়ারটির দর বেড়েই চলেছে। কে অ্যান্ড কিউ প্রায় ৯ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধিতে তৃতীয় অবস্থানে ছিল। বস্ত্র, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে লেনদেন হয় ৯ শতাংশ করে। বস্ত্র খাতে ৭০ শতাংশ কোম্পানির দরপতন হয়। স্টাইল ক্রাফটের প্রায় ১৫ কোটি টাকা লেনদেন হয়, দর বেড়েছে ৪৪ টাকা ৩০ পয়সা। কোম্পানিটি দর বৃদ্ধির শীর্ষ দশের মধ্যে অবস্থান করে। ইউনাইটেড পাওয়ারের ১৯ কোটি টাকা লেনদেন হয়, দর বেড়েছে চার টাকা। প্রায় ৩৪ কোটি টাকা লেনদেন হয় মুন্নু সিরামিকের। দর বেড়েছে ১৯ টাকা ১০ পয়সা। লেনদেনে একক প্রাধান্য ছিল কোম্পানিটির। অন্যদিকে বিমা খাতে ৫৫ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। সোয়া সাত শতাংশ বেড়ে গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স ও পাঁচ শতাংশ বেড়ে প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স দর বৃদ্ধির শীর্ষ দশের তালিকায় উঠে আসে। তথ্য ও প্রযুক্তি খাতে ৭৭ শতাংশ কোম্পানির দর বেড়েছে। প্রায় ১০ কোটি টাকা লেনদেন হয় আইটি কনসালট্যান্টসের। দর বেড়েছে দুই টাকা ৮০ পয়সা। কোম্পানিটি দর বৃদ্ধির শীর্ষ দশের মধ্যে অবস্থান করে। এছাড়া ১০ শতাংশ বেড়ে ইনটেক লিমিটেড দর বৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে।

 

সর্বশেষ..