সাত মাস আগের অবস্থানে লেনদেন

ডিএসইতে সূচকের পতন অব্যাহত

নিজস্ব প্রতিবেদক: গত সপ্তাহজুড়ে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের টানা পতনের পর গতকাল রোববার চলতি সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসেও সিংহভাগ কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিটদর কমায় সূচক পতনের মধ্য দিয়ে লেনদেন শেষ হয়েছে। অন্যদিকে লেনদেন কমে সাত মাস আগের অবস্থানে নেমেছে। আগের কার্যদিবসের তুলনায় গতকাল লেনদেন ১২ কোটি ৬৭ লাখ টাকা কমে ৮৩৭ কোটি টাকায় নেমেছে। এর আগে গত ২৭ এপ্রিল ডিএসইতে ৮২৪ কোটি টাকা লেনদেন হয়। বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, গতকাল প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৭৮ দশমিক ১৯ পয়েন্ট বা এক দশমিক ১৪ শতাংশ কমে ছয় হাজার ৭৭৩ দশমিক ৮৯ পয়েন্টে পৌঁছায়। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক ১৩ দশমিক শূন্য পাঁচ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৯০ শতাংশ কমে এক হাজার ৪২৯ দশমিক ৩২ পয়েন্টে অবস্থান করে। অন্যদিকে ডিএস৩০ সূচক ২৬ দশমিক ৬৯ পয়েন্ট বা এক দশমিক শূন্য দুই শতাংশ কমে দুই হাজার ৫৭৬ দশমিক ১৭ পয়েন্টে স্থির হয়।

ডিএসইতে এদিন মোট ৩৭২টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ৬৬টির এবং কমেছে ২৯১টির। বাকি ১৫টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ারদর অপরিবর্তিত ছিল। গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয় ৮৩৭ কোটি ১০ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৮৪৯ কোটি ৭৭ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে গতকাল লেনদেন কমেছে ১২ কোটি ৬৭ লাখ টাকা।

ডিএসইতে এদিন ২৩ কোটি ৭৪ লাখ ২১ হাজার ৯টি শেয়ার এক লাখ ৩৭ হাজার ৯৫৫ বার হাতবদল হয়। গতকাল লেনদেনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পতনের চিত্র দেখা গেছে।

ডিএসইতে গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে বাংলাদেশ এক্সপোর্ট ইমপোর্ট কোম্পানি লিমিটেড (বেক্সিমকো)। কোম্পানিটির ৯১ কোটি ৭২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর ছয় টাকা ৯০ পয়সা কমেছে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ওয়ান ব্যাংক লিমিটেডের ৫৭ কোটি ১৫ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির শেয়ারদর অপরিবর্তিত ছিল। এছাড়া লেনদেনের শীর্ষ ১০-এ থাকা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেডের ৪৬ কোটি ৪৫ লাখ, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল লিমিটেডের ৪৩ কোটি ৫৫ লাখ, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের ২১ কোটি ৮৫ লাখ, ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ২১ কোটি ৭০ লাখ, আনোয়ার গ্যালভানাইজিং লিমিটেডের ১৯ কোটি ৬৬ লাখ, ওরিয়ন ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ১৮ কোটি ৬০ লাখ, সাইফ পাওয়ারটেকের ১৬ কোটি ৪০ লাখ এবং এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেডের ১৬ কোটি ১৩ লাখ টাকার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

এদিকে ৯ দশমিক ৭৮ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে সেনাকল্যাণ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড। এর পরের অবস্থানে থাকা একমি পেস্টিসাইডস লিমিটেডের ৯ দশমিক ৭৬ শতাংশ, আজিজ পাইপস লিমিটেডের সাত দশমিক শূন্য পাঁচ শতাংশ, আনোয়ার গ্যালভানাইজিং লিমিটেডের পাঁচ দশমিক ৪৫ শতাংশ, আমান ফিডের চার দশমিক শূন্য ছয় শতাংশ, রহিম টেক্সটাইলের তিন দশমিক ৭৫ শতাংশ, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড লিমিটেডের তিন দশমিক শূন্য ছয় শতাংশ, এবং বীকন ফার্মার দুই দশমিক ৯৩ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ১৩৩ দশমিক শূন্য ছয় পয়েন্ট বা এক দশমিক ১০ শতাংশ কমে ১১ হাজার ৯২৭ দশমিক ১৯ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২২০ দশমিক ১২ পয়েন্ট বা এক দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ কমে ১৯ হাজার ৮৩৮ পয়েন্টে অবস্থান করে। সিএসইতে ২৬৬টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। দর বেড়েছে ৫৩টির, কমেছে ১৯২টির এবং ২১টির দর অপরিবর্তিত ছিল। গতকাল সিএসইতে লেনদেন হয় ৩৯ কোটি ১২ লাখ টাকার, এর আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৩৫ কোটি ৫৪ লাখ টাকা।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন   ❑ পড়েছেন  ৯৩৯  জন  

সর্বশেষ..