কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

সাপ্তাহিক দরপতনের শীর্ষে ইউনাইটেড পাওয়ার

নিজস্ব প্রতিবেদক: ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গত সপ্তাহে দর কমার তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারদর কমেছে ১২ দশমিক ৭০ শতাংশ। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্রমতে কোম্পানিটির প্রতিদিন গড়ে সাত কোটি ২৭ লাখ ৩৩ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৩৬ কোটি ৩৬ লাখ ৬৫ হাজার টাকার শেয়ার।

এদিকে সর্বশেষ কার্যদিবসে কোম্পানিটির শেয়ারদর শূন্য দশমিক ৭১ শতাংশ বা এক টাকা ৯০ পয়সা কমে প্রতিটি সর্বশেষ ২৬৩ টাকা ৯০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দরও ছিল ২৬৩ টাকা ৯০ পয়সা। ওই দিন কোম্পানিটির পাঁচ কোটি সাত লাখ ২০ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দিনজুড়ে এক লাখ ৯০ হাজার ৭৩৮টি শেয়ার মোট এক হাজার ৫৫ বার হাতবদল হয়। ওইদিন শেয়ারদর সর্বনি¤œ ২৬২ টাকা ১০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ২৬৯ টাকা ৯০ পয়সায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে কোম্পানির শেয়ারদর ১৯৪ টাকা ৮০ পয়সা থেকে ৩৩৫ টাকা ৯০ পয়সায় ওঠানামা করে।

দর কমার তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল আইএফআইসি ব্যাংক ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ড। আলোচিত সময়ে ফান্ডটির ইউনিটদর কমেছে ১২ দশমিক ৫০ শতাংশ। ফান্ডটির প্রতিদিন গড়ে এক কোটি ৮৫ লাখ তিন হাজার ৬০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৯ কোটি ২৫ লাখ ১৮ হাজার টাকার শেয়ার।

তৃতীয় স্থানে অবস্থানে ছিল প্রভাতী ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারদর কমেছে ১১ দশমিক ২৫ শতাংশ। কোম্পানিটির প্রতিদিন গড়ে পাঁচ কোটি ৫২ লাখ ৮৬ হাজার ৮০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ২৭ কোটি ৬৪ লাখ ৩৪ হাজার টাকার শেয়ার।

সাপ্তাহিক দরপতনের শীর্ষ চতুর্থ অবস্থানে ছিল এসইএমএল আইবিবিএল শরিয়াহ্ ফান্ড। আলোচিত সময়ে ফান্ডটির ইউনিটদর কমেছে ৯ দশমিক ৮৪ শতাংশ। ফান্ডটির প্রতিদিন গড়ে দুই কোটি ২৭ লাখ ৭২ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ১১ কোটি ৩৮ লাখ ৬০ হাজার টাকার শেয়ার।

এরপরের অবস্থানে ছিল আইসিবি এএমসিএল সেকেন্ড মিউচুয়াল ফান্ড। আলোচিত সময়ে ফান্ডটির ইউনিটদর কমেছে ৯ দশমিক ২৮ শতাংশ। ফান্ডটির প্রতিদিন গড়ে এক কোটি ১৪ লাখ ৬৪ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে পাঁচ কোটি ৭৩ লাখ ২০ হাজার টাকার শেয়ার।

এরপরের অবস্থানে থাকা এসিআই লিমিটেডের শেয়ারদর কমেছে আট দশমিক ৯৫ শতাংশ। কোম্পানিটির প্রতিদিন গড়ে দুই কোটি চার লাখ ৪৭ হাজার ৮০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ১০ কোটি ২২ লাখ ৩৯ হাজার টাকার শেয়ার।

সপ্তম অবস্থানে থাকা তাকাফুল ইসলামী ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের শেয়ারদর কমেছে আট দশমিক ৭৮ শতাংশ। কোম্পানিটির প্রতিদিন গড়ে দুই কোটি ৮১ লাখ ৪০ হাজার ৬০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ১৪ কোটি সাত লাখ তিন হাজার টাকার শেয়ার।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..