সাবরাং ট্যুরিজম পার্ক পরিদর্শন করলেন মুখ্য সচিব

শেয়ার বিজ ডেস্ক: কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় নির্মাণাধীন সাবরাং ট্যুরিজম পার্ক পরিদর্শন করেছেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস। গতকাল চট্টগ্রাম বিভাগের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ উন্নয়ন কর্মকাণ্ড সরেজমিনে পরিদর্শনের অংশ হিসেবে এ সফর করেন তিনি। এ সময় তার সঙ্গে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বেজা) নির্বাহী চেয়ারম্যান শেখ ইউসুফ হারুন, মহাব্যবস্থাপক মোহাম্মদ হাসান আরিফ, চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার মো. কামরুল হাসান, কক্সবাজারের ডেপুটি কমিশনার (ডিসি) মো. মামুনুর রশীদ সাবরাং ট্যুরিজম পার্কের ব্যবস্থাপক মাহবুবুর রহমানসহ বেজার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। গতকাল এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সাবরাং ট্যুরিজম পার্কে এরই মধ্যে প্রশাসনিক ভবন, ডাইক নির্মাণ, ব্রিজ নির্মাণ, ছয়ভেন্ট সøুইস গেট (রেগুলেটর) নির্মাণ এবং বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ শেষ হয়েছে। চলতি বছরের জুনে সাবরাং ট্যুরিজম পার্কের আইকনিক ফটো কর্নার উদ্বোধন করা হয়। এছাড়া এখানে প্রতিরক্ষা বাঁধ, ভূমি উন্নয়নকাজসহ পানি সরবরাহ লাইন ও সীমানা প্রাচীর নির্মাণের কাজ চলমান। দ্বিতীয় পর্যায়ে দুটি গেট ও অভ্যন্তরীণ সড়ক নির্মাণকাজ চলমান।

৯৬৫ একর আয়তনের এ পার্ক কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নে অবস্থিত। পার্কটি ঢাকা থেকে প্রায় ৪৫০ কিলোমিটার ও কক্সবাজার শহর থেকে প্রায় ৮২ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। মেরিনড্রাইভের মাধ্যমে ট্যুরিজম পার্কের সঙ্গে সরাসরি সড়ক যোগাযোগ রয়েছে। তাছাড়া নিকটস্থ জাতীয় মহাসড়ক এন-১-এর মাধ্যমে ট্যুরিজম পার্কের সঙ্গে দেশের অন্যান্য এলাকার সড়ক যোগাযোগ বিদ্যমান। এ মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে সাবরাং ট্যুরিজম পার্কে প্রতিদিন দেশি-বিদেশি ৩৯ হাজার পর্যটক ভ্রমণ করতে পারবেন। এতে করে প্রায় ১০ হাজার মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ হবে।

আহমদ কায়কাউস সাবরাং ট্যুরিজম পার্কের সামগ্রিক উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সারাদেশে পরিকল্পিত শিল্পায়নের অংশ হিসেবে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলা হচ্ছে; পাশাপাশি সারাবিশ্বের পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে গড়ে তোলা হচ্ছে ট্যুরিজম পার্ক। দেশের পর্যটন খাতকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করার ক্ষেত্রে এ ট্যুরিজম পার্কগুলো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

সর্বশেষ..