Print Date & Time : 9 May 2021 Sunday 2:19 pm

সিংহভাগ শেয়ারের দর বাড়ায় ডিএসইতে সূচক ও লেনদেনের উত্থান

প্রকাশ: March 3, 2021 সময়- 12:19 am

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল মঙ্গলবার চলতি সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবসে সিংহভাগ শেয়ারের দর বাড়ায় সূচকের উত্থান হয়েছে। একইসঙ্গে লেনদেন আগের কার্যদিবসের তুলনায় ২১৬ কোটি টাকা বেড়েছে। এদিন মোট ৩৫৯টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ২৩৩টির এবং কমেছে ৪২টির। বাকি ৮৪টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ারদর অপরিবর্তিত ছিল। গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয় ৮৩৩ কোটি ৯৪ লাখ ৪৯ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৬১৮ কোটি ৪০ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। অর্থাৎ লেনদেন বেড়েছে ২১৫ কোটি ৯৪ লাখ ৯ হাজার টাকা। এদিন ২১ কোটি ৬৯ লাখ ৫৮ হাজার ৬৯টি শেয়ার এক লাখ ৫৬ হাজার ৩৯৪ বার হাতবদল হয়। গতকাল লেনদেনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত উত্থানের চিত্র দেখা গেছে। অন্যদিকে চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক বাড়লেও লেনদেন সামান্য কমেছে।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৮১ দশমিক ৪৪ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৫০ শতাংশ বেড়ে পাঁচ হাজার ৫০৮ দশমিক ২৬ পয়েন্টে পৌঁছায়। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক ১৬ দশমিক ৬৬ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৩৫ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ২৪৫ দশমিক ৭৪ পয়েন্টে অবস্থান করে। অন্যদিকে ডিএস৩০ সূচক ৩৮ দশমিক ৭৫ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৮৭ শতাংশ বেড়ে দুই হাজার ১০৮ দশমিক ১৫ পয়েন্টে স্থির হয়। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন পাঁচ হাজার ১১৬ কোটি ২১ লাখ ৯৭ হাজার টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে চার লাখ ৭২ হাজার ২৮৮ কোটি ৪৪ লাখ চার হাজার টাকায়।

গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশ কোম্পানি লিমিটেড। কোম্পানিটির ১০৪ কোটি ৭৮ লাখ ৫৮ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর আট টাকা বেড়েছে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা বাংলাদেশ এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট কোম্পানি (বেক্সিমকো) লিমিটেডের ৯৮ কোটি ৪৭ লাখ ৬৯ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির শেয়ারদর দুই টাকা ১০ পয়সা বেড়েছে। বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ৬৩ কোটি ৩৯ লাখ ২৫ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারদর ১২ টাকা ২০ পয়সা বেড়েছে। এর পরের অবস্থানগুলোয় থাকা রবি আজিয়াটা লিমিটেডের ৫৪ কোটি ৬৩ লাখ ৮৯ হাজার টাকার, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেডের ৩৩ কোটি ৯৩ লাখ আট হাজার টাকার, সামিট পাওয়ার লিমিটেডের ২৮ কোটি ৭৪ লাখ ৭৮ হাজার টাকার, জিবিবি পাওয়ার লিমিটেডের ২৩ কোটি ২৫ লাখ ১২ হাজার টাকার, ওরিয়ন ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ২০ কোটি ২৭ লাখ ছয় হাজার টাকার, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ১৬ কোটি ৮৫ লাখ ৮৭ হাজার টাকার এবং লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ লিমিটেডের ১৫ কোটি ৩৩ লাখ ৭৯ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

১০ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে ছিল দি পেনিনসুলা চিটাগং লিমিটেড। লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেডের ৯ দশমিক ৮১ শতাংশ, ই-জেনারেশন লিমিটেডের ৯ দশমিক ৭৩ শতাংশ, আনোয়ার গ্যালভানাইজিং লিমিটেডের ৯ দশমিক ৬৮ শতাংশ, জাহিনটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ৯ দশমিক ৪৩ শতাংশ, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডের ৯ দশমিক ৩০ শতাংশ, এপোলো ইস্পাত কমপ্লেক্স লিমিটেডের ৯ দশমিক ২৩ শতাংশ, ফাস ফাইন্যান্স লিমিটেডের আট দশমিক ১৬ শতাংশ, খান বাহাদুর পিপি ওভেন ব্যাগ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের সাত দশমিক ৩১ শতাংশ এবং জিএসপি ফাইন্যান্স লিমিটেডের ছয় দশমিক ৮৭ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ১৯৬ দশমিক শূন্য সাত পয়েন্ট বা দুই দশমিক শূন্য সাত শতাংশ বেড়ে ৯ হাজার ৬৫৬ দশমিক ২২ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩২৯ দশমিক শূন্য ছয় পয়েন্ট বা দুই দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ বেড়ে ১৬ হাজার ১৬ দশমিক শূন্য ৯ পয়েন্টে অবস্থান করে। সিএসইতে ২৪০টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। দর বেড়েছে ১৬৮টির, কমেছে ২৭টির এবং ৪৫টির দর অপরিবর্তিত ছিল। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩৩ কোটি ৪২ লাখ ২১ হাজার ৪৬৮ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৩৫ কোটি ৭৯ লাখ ৪৭ হাজার ৬৮৭ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে দুই কোটি ৩৭ লাখ ২৬ হাজার ২১৯ টাকার।

সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে রবি আজিয়াটা লিমিটেড। কোম্পানিটির চার কোটি ১৫ লাখ ৭০ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশ কোম্পানি লিমিটেডের তিন কোটি ৬৩ লাখ ৭০ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে। লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেডের দুই কোটি ৫৭ লাখ ৪০ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।