সিআইডি কর্মকর্তার অবৈধ সম্পদের খোঁজে দুদক

নিজস্ব প্রতিবেদক: পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) উপ-পরিদর্শক (এসআই) ওয়ালিউল্লাহর দুর্নীতি অনুসন্ধানে নেমেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। অভিযোগ রয়েছে, এসআই ওয়ালিউল্লাহ ঘুষ-দুর্নীতির মাধ্যমে শত কোটি টাকার সম্পদ অর্জন করেছেন। সম্প্রতি অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয়ার পর দুদকের প্রধান কার্যালয় থেকে তার বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগ তদন্তে কর্মকর্তা নিয়োগ দেয়া হয়েছে। দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক প্রবীর কুমার দাস তদন্তের দায়িত্ব পেয়েছেন বলে সংস্থাটির জনসংযোগ দপ্তর সূত্রে জানা গেছে।

এসআই ওয়ালিউল্লাহর বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়ে জানা গেছে, ঘুষ ও দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জিত টাকা দিয়ে তিনি রাজধানীর রাজারবাগে সাততলা ভবন নির্মাণ করেছেন। উত্তরায় বাড়িসহ জমি কিনেছেন। এছাড়া নেত্রকোণায় বাড়ি ও জমি কেনার পাশাপাশি সুনামগঞ্জ ও ময়মনসিংহেও অনেক সম্পত্তি কিনেছেন। অভিযোগে বিলাসবহুল প্রাইভেটকারসহ ব্যাংকে হিসাবে লাখ লাখ টাকা থাকার কথাও উল্লেখ করা হয়েছে।

এর আগে গত ১৮ অক্টোবর দিনাজপুরে মা ও ছেলেকে অপহরণের ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার সারোয়ার কবিরের অবৈধ সম্পদের

বিষয়ে অনুসন্ধান শুরু করে সংস্থাটি। অভিযোগ অনুসন্ধানে অনুসন্ধান কর্মকর্তা সিআইডির কাছ থেকে কাছে ব্যক্তিগত নথিপত্র সংগ্রহ করেছেন বলে জানা গেছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন   ❑ পড়েছেন  ৯০  জন  

সর্বশেষ..