বাণিজ্য সংবাদ শিল্প-বাণিজ্য

সিএমএ পেশার সম্ভাবনা ও চ্যালেঞ্জ বিষয়ে কর্মশালা

শেয়ার বিজ ডেস্ক: দি ইনস্টিটিউট অব কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউনট্যান্টস অব বাংলাদেশের (আইসিএমএবি) আয়োজনে ‘প্র্যাকটিসিং অপরচুনিটিজ ফর সিএমএ’স: প্রসপেক্টাস অ্যান্ড চ্যালেঞ্জেস’ শিরোনামে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইনস্টিটিউটের রুহুল কুদ্দুস অডিটোরিয়ামে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠানটির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফর উদ্দিন কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন। বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কমিশনার এবং আইসিএমএবি’র ট্রেজারার ড. স্বপন কুমার বালা মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। আলোচক হিসেবে অংশ নেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব ও আইসিএমএবি’র সেক্রেটারি ড. আবদুর রহমান খান। আইসিএমএবি’র সেমিনার ও কনফারেন্স কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান মো. কাওসার আলম ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

আইসিএমএবি’র সভাপতি এম আবুল কালাম মজুমদার স্বাগত বক্তব্য দেন। তিনি সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ের গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানগুলোয় সিএমএ পেশাদারদের অবদান ও কাজের বিষয়ে আলোকপাত করেন। তারা কেবল দেশেই নয়, দেশের বাইরেও নিজেদের কাজের মাধ্যমে মূল্যবান বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করছেন। কস্ট অ্যান্ড অ্যাকাউন্ট ম্যানেজমেন্ট পেশাদারদের দক্ষতার বিষয়ে উল্লেখ করতে গিয়ে তিনি বলেন, অ্যান্টিডাম্পিংয়ের মতো বিভিন্ন সমস্যায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে সময়োপযোগী সহায়তা করতে পারবেন সিএমএ পেশাদাররা। রেডিমেড গার্মেন্ট, ফার্মাসিউটিক্যাল, আবাসন, সিরামিক, ফুটওয়্যারসহ সব পর্যায়ের খাতে কস্ট অডিট বাধ্যতামূলক করার জন্য প্রধান অতিথির দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি। তিনি আশা প্রকাশ করেন, জাতীয় অর্থনীতিতে এটি উন্নয়নমূলক ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে।

স্বপন কুমার বালা তার প্রবন্ধে সিএমএ পেশার গুরুত্বের বিষয়ে সামগ্রিক চিত্র তুলে ধরেন। বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ অর্থনৈতিক লক্ষ্যমাত্রার সাপেক্ষে এ পেশার বর্তমান পরিস্থিতি, সম্ভাবনা ও বিভিন্ন চ্যালেঞ্জের বিষয়ে তিনি আলোকপাত করেন। আবদুর রহমান খান প্রবন্ধের বিষয়ে সংক্ষেপে মতামত তুলে ধরেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাণিজ্য সচিব মো. জাফর উদ্দিন সব খাতে ব্যবস্থাপনার গুরুত্ব উল্লেখ করেন। তিনি আশা প্রকাশ করেন, সিএমএ পেশাদাররা দেশের সরকারি ও বেসরকারি খাতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারবেন। একই সঙ্গে অ্যান্টিডাম্পিংয়ের মতো জটিল সমস্যাগুলোতেও তারা পেশাদারি দক্ষতার মাধ্যমে সহায়তামূলক ভূমিকা পালন করতে পারবেন। বক্তব্যের আগে তিনি আইসিএমএবি ‘এমপ্লয়মেন্ট গেটওয়ে’ এবং কস্ট অ্যাকাউন্ট সিস্টেমের তৃতীয় খণ্ডের উদ্বোধন করেন।

কর্মশালায় আইসিএমএবির সাবেক সভাপতি, কাউন্সিল সদস্য, সদস্য ও উল্লেখযোগ্য সংখ্যক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ..