শোবিজ

সিনেমার জন্য শয্যাসঙ্গী হতে পারব না : পূজা


শোবিজ ডেস্ক: অভিনেত্রী থেকে মা। জীবনের নতুন অধ্যায়। যাঁর কথা বলা হচ্ছে, তিনি বাংলাদেশেও বেশ জনপ্রিয়। সিনেমাও করেছেন। হ্যাঁ, আমরা পূজা ব্যানার্জির কথাই বলছি।

এরই মধ্যে করোনা মহামারির দ্বিতীয় ঢেউয়ে দিশেহারা ভারত। শুটিং কম। তবে পূজাভক্তদের জন্য সুখবর, গত ৪ জুন ‘হইচই’ প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পেয়েছে ‘পাপ’-এর দ্বিতীয় সিজন। মা হওয়ার পর প্রথম কাজ এটি।

সম্প্রতি কলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকার সঙ্গে দীর্ঘ আলাপ সেরেছেন চিত্রনায়িকা পূজা ব্যানার্জি, সেখানে মা হওয়া থেকে উঠে এসেছে কাস্টিং কাউচ প্রসঙ্গও।

অভিনেত্রী থেকে মা। কেমন লাগছে জীবনের নতুন অধ্যায়? এমন প্রশ্নের জবাবে পূজা বলেন, ‘আমি আগাগোড়াই নিজের সংসার চেয়েছিলাম, সন্তান চেয়েছিলাম। দুটোই পেয়েছি। ঈশ্বরের থেকে আমার আর কিছু চাওয়ার নেই। অক্টোবর মাসে কৃশিব আসার পর থেকে নিজেকে সম্পূর্ণ মনে হচ্ছে। জীবনে আর কিছু চাই না। অনেকেই বলে, অভিনেত্রীদের মা হতে নেই, চেহারা নষ্ট হয়ে যায়। আমি এগুলো কখনোই বিশ্বাস করি না।’

খোলামেলা দৃশ্যে কতটা স্বচ্ছন্দ? এমন প্রশ্নের জবাবে পূজা বলেন, ‘আমি নিজে খোলামেলা দৃশ্যে অভিনয় করতে খুব একটা স্বচ্ছন্দ বোধ করি না। কিন্তু আমি মনে করি, চিত্রনাট্যের প্রয়োজনে খোলামেলা দৃশ্যে অভিনয়ে আপত্তি থাকা উচিত নয়। কিন্তু জোর করে যদি সাহসী দৃশ্য দেখানোর চেষ্টা করা হয়, সেটা আমার চোখে ভুল।’


কাস্টিং কাউচের অভিজ্ঞতা হয়েছে? এ প্রশ্নে পূজার ভাষ্য, ‘হ্যাঁ। হয়েছে। একাধিকবার। তবে টলিউডে নয়। বলিউড এবং দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রিতে। কিন্তু আমি কখনোই কোনো অন্যায় আবদারকে প্রশ্রয় দিইনি। ভালো কাজ করার জন্য কারও শয্যাসঙ্গিনী হতে পারব না। এমন অনেককেই চিনি যাঁরা কাজ পাওয়ার আশায় ভুল পথে হেঁটেছেন। কিন্তু শেষমেশ কাজ না পেয়ে মিটু অভিযোগ এনেছেন। মেয়েরা মুখ বুজে অন্যায় মেনে নেয় বলেই এই ধরনের শোষণ করার সাহস পায় কিছু মানুষ। প্রতিবাদ করতে শুরু করলেই ছবিটা কিছুটা হলেও বদলাবে।’

সেই সাক্ষাৎকারে এ চিত্রনায়িকা আরও বলেছেন, তিনি কখনো প্রতিযোগিতায় বিশ্বাসী নন। যা পেয়েছেন, তা নিয়েই খুব খুশি। আর সন্তানকে পাওয়ার পর জীবনের সব চাওয়াই পূর্ণ হয়ে গেছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..