প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সিলেটে বন্যা: পাঁচ হাজার পরিবার পাবে ১০ হাজার করে টাকা

শেয়ার বিজ ডেস্ক: ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে পুরো সিলেট জেলা স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যায় কবলিত হয়েছে। গত ১৪ জুন থেকে শুরু হওয়া এ বন্যায় সিটি করপোরেশনসহ ১৩টি উপজেলায় ১০৮টি ইউনিয়ন ও পাঁচটি পৌরসভা বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়। এ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় ৪১ হাজার ঘরবাড়ি। প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিল থেকে প্রথম কিস্তিতে ৫ হাজার পরিবারকে ১০ হাজার টাকা করে অনুদান দেয়া হবে। গতকাল সিলেটের ডিসি মো. মজিবুর রহমান তার কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান। খবর: ঢাকা পোস্ট।

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিল থেকে ইতোমধ্যে ৫ কোটি টাকা অনুদান পেয়েছি। সিলেট জেলায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় ৪১ হাজার ঘরবাড়ি। আজ থেকে বিভিন্ন উপজেলায় প্রথম ধাপে ৫ হাজার পরিবারকে ১০ হাজার টাকা করে এ অনুদান বিতরণ করা হবে। পর্যায়ক্রমে ক্ষতিগ্রস্ত অন্যদের মধ্যে পুনর্বাসনের জন্য আর্থিক অনুদান দেয়া হবে।

এ সময় তিনি আরও জানান, সিলেট জেলায় ৬৫৪টি আশ্রয়কেন্দ্রে ২ লাখ ৩০ হাজার ৬৩২ জন লোক আশ্রয় নেন। এখনও ৪৫৪টি আশ্রয়কেন্দ্রে ৩৫ হাজার ৬৮৫ জন লোক অবস্থান করছেন। এ ছাড়া এসব আশ্রয়কেন্দ্রে গবাদিপশু ছিল ৩১ হাজার ৯৭টি। এখনও প্রায় ৫৩০টি গবাদিপশু এসব আশ্রয়কেন্দ্রে রয়েছে।

ভেজাল মসলা বিক্রি করায় ৬ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা: এদিকে ঈদুল আজহা সামনে রেখে সিলেটে বৃদ্ধি পেয়েছে মসলার ক্রয়-বিক্রয়। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে অতিরিক্ত মুনাফার আশায় ভেজাল মসলা বিক্রি করে আসছে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী। গতকাল সিলেটের কালীঘাটে এসব ভেজাল মসলা বিক্রয়কারী প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালায় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়। এ সময় ৬ প্রতিষ্ঠাকে ১৭ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আমিরুল ইসলাম মাসুদ। তিনি জানান, অভিযানে দেখা যায় ১ হাজার ৭০ টাকা কেজি ধরে কিংবা তারও বেশি দামে লবঙ্গ কিনে ব্যবসায়ীরা তা বিক্রি করছেন ১ হাজার ৫০ টাকা দরে। বিষয়টি অভিযান পরিচালনাকারী দলের সন্দেহ হলে তদন্তে দেখা যায়, ৫০০-৬০০ টাকা কেজিদরে কেনা লবঙ্গ ১ হাজার ৭০ টাকা দরে কেনা লবঙ্গের সঙ্গে মিশ্রিত করে তা ১ হাজার ৫০ টাকা ধরে বিক্রি করে ক্রেতাদের প্রতারিত করা হচ্ছে। পরে তাদের জরিমানা করে সতর্ক করা হয়।