Print Date & Time : 27 September 2021 Monday 10:11 am

সিসি ক্যামেরার আওতায় আসছে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক

প্রকাশ: June 20, 2021 সময়- 10:26 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পুরোটাই সিসি ক্যামেরার আওতায় আসছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। গতকাল দুপুরে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে সড়ক পরিবহন টাস্কফোর্সের সভা শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা জানান।

সভায় সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যকরী সভাপতি শাজাহান খান, সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি মো. মসিউর রহমান রাঙ্গা, পুলিশ মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদসহ টাস্কফোর্সের অন্য সদস্যরা সশরীরে ও ভার্চুয়ালি উপস্থিত ছিলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এজন্য আমরা হাইওয়েতে এখন ক্যামেরা ফিট করছি। ক্যামেরার টেন্ডারও হয়ে গেছে। ঢাকা থেকে চট্টগ্রামের রাস্তাটি পুরোপুরি ক্যামেরার নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে। তাহলে কীভাবে দুর্ঘটনা হলো, কীভাবে, কে গাড়ি নামালÑসবগুলোই আমাদের নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে। আমাদের পুলিশ বাহিনী ওখানে বসে বসে দেখতে পারবে কে কী করছে।’

মহাসড়কে কোটি কোটি টাকার চাঁদা বাণিজ্য চলে, এটি তো দীর্ঘদিন ধরে চলে আসছে। এর সঙ্গে বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠনগুলোও জড়িত। সেক্ষেত্রে কীভাবে পুরোপুরি আশা প্রকাশ করছেন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হবেÑসাংবাদিকদের এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, চাঁদা বাণিজ্যের কথা আমি বলব না; আমি বলব, একটা টোল আছে, সেটা দিতে হবে। সেটা কোথা থেকে নেবে, কীভাবে এবং কত টাকা নেবে, সেটা নির্ধারিত হবে। সেই জায়গা ছাড়া এই টোল কেউ নিতে পারবে না। এছাড়া পরিবহনের যে চাঁদা, যেটা মালিক বা শ্রমিকরা নিয়ে থাকে সমিতি চালানোর জন্য, সেটাও নির্ধারিত রয়েছে। সে চাঁদাও বাস টার্মিনাল বা যেখান থেকে বাস ছাড়েন এর বাইরে কেউ নিতে পারবে না।

ঢাকাতেও আমরা দেখি বিভিন্ন ঠিকাদারের নামে বিভিন্ন সিগন্যালে রানিং গাড়ি থেকে চাঁদা নেয়া হয়, এটা সবাই জানেÑএমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এটা আমরা জানিয়ে দিচ্ছি, যে-যে সিদ্ধান্ত হয়েছে, নিজ নিজ মন্ত্রণালয় বসে তাদের জানিয়ে দেবে এসব চাঁদাবাজি কিংবা যত্রতত্র কালেকশন যাতে না করে।’

এদিকে পরিবহন শ্রমিকদের মালিকপক্ষ থেকে নিয়োগপত্র দিতে হবে। সেটা দেয়ার জন্য মালিক ও শ্রমিকপক্ষ আজ উপস্থিত ছিলেন। তারা দু’পক্ষ নিজেরা বসে এ বিষয়ে শিগগিরই সিদ্ধান্ত নেবেন বলেও জানান মন্ত্রী।