বিশ্ব সংবাদ

সীমান্তে গুলি বন্ধে সম্মত ভারত ও পাকিস্তান

শেয়ার বিজ ডেস্ক: কাশ্মীরসহ অন্যান্য অঞ্চলে দু’দেশের সীমান্তে গুলি চালানো বন্ধ করতে একমত হয়েছে ভারত ও পাকিস্তান। দু’দেশের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে সম্পাদিত বিভিন্ন চুক্তির আলোকে উভয়পক্ষ রাজি হয়েছে। পাকিস্তান সামরিক বাহিনীর এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। দক্ষিণ এশিয়ার দুই চিরবৈরী দেশ ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে এ ধরনের সমঝোতায় আসা অত্যন্ত বিরল। খবর: আল জাজিরা।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ভারতের সামরিক অভিযানবিষয়ক দপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজিএমও) এবং পাকিস্তান সামরিক বাহিনীর মধ্যে হটলাইনে যোগাযোগ হয়েছে। এ সময় উভয়পক্ষ সব ধরনের সমঝোতা কঠোরভাবে মেনে চলতে সম্মত হয়েছে। আজ শুক্রবার মধ্যরাত থেকে এ সমঝোতা কার্যকর হবে।

উম্মুক্ত এবং আন্তরিক আলোচনার মাধ্যমে উভয় পক্ষ এ ধরনের ঐকমত্যে আসতে সক্ষম হয় বলে এ সময় জানানো হয়। ২০০৩ সালে দু’দেশের সীমান্ত লাইন অব কন্ট্রোল নিয়ে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। তবে উভয় পক্ষ বারবার এ সমঝোতা ভঙ্গ করে চলেছে। পাকিস্তানের বৈদেশিক দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, গত বছর ভারতের বিভিন্ন ধরনের সামরিক বোমা হামলায় অন্তত ২৮ জন বেসামরিক মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। এছাড়া অন্তত ২৫৭ জন আহত হয়েছে। গত ১ জানুয়ারি থেকেই ভারত প্রায় ১৭৫ বার এ সমঝোতা লঙ্ঘন করেছে। এতে অন্তত আটজন হতাহত হয়েছে। অপরদিকে ভারতের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, ২০২০ সালে পাকিস্তান ওই সীমান্তে প্রায় পাঁচ হাজার ১৩৩ বার সমাঝোতা লঙ্ঘন করেছে। এতে প্রায় ২২ জন বেসামরিক মানুষ প্রায় হারিয়েছেন। আর আহত হয়েছেন প্রায় ১৯৭ জন।

দক্ষিণ এশিয়ার দুই পারমাণবিক শক্তিধর দেশ তিনবার পূর্ণাঙ্গ যুদ্ধে জড়িয়েছে। এছাড়া ছোটখাটো অসংখ্য সংঘাত হয়েছে দু’দেশের মধ্যে। ১৯৪৭ সালে দেশভাগের পর থেকেই বৈরী সম্পর্ক রয়েছে দু’দেশের মধ্যে। তাদের সংঘাতের কেন্দ্রে রয়েছে জম্মু-কাশ্মীর এলাকা। তবে ২০১৯ সালের পাল্টাপাল্টি হামলার পর তাদের সম্পর্ক তলানিতে পৌঁছায়। এরপর বেশ কয়েকবার উভয়পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা তলানিতে পৌঁছায়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..