বিশ্ব সংবাদ

সীমান্তে চীন ও ভারতের মধ্যে ফের সংঘর্ষ

শেয়ার বিজ ডেস্ক: বিতর্কিত সীমান্ত এলাকায় চীন ও ভারতের সেনারা ফের সংঘর্ষে জড়িয়েছেন। সম্প্রতি উত্তর সিকিমের নকু লা এলাকায় সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে। এতে উভয়পক্ষের বেশ কয়েকজন সেনা আহত হয়েছেন। ভারতীয় গণমাধ্যম সেনা কর্মকর্তাদের বরাতে গতকাল এ তথ্য জানিয়েছে। এর আগে গত বছরের জুনে উত্তর ভারতের লাদাখের গলওয়ানে ভারত-চীন সীমান্তে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে ২০ ভারতীয় সেনা নিহত হয়েছিলেন। ওই সংঘর্ষে নিজেদেরও কিছু সেনা সদস্য হতাহত হয়েছেন বলে চীন স্বীকার করলেও সঠিক সংখ্যা প্রকাশ করেনি। তার পর থেকে ভারত ও চীনের মধ্যে প্রবল উত্তেজনা বিরাজ করছিল। খবর: এনডিটিভি।

ভারতের সামরিক বাহিনীর কর্মকর্তাদের উদ্ধৃতি দিয়ে দেশটির গণমাধ্যম জানিয়েছে, চীনের সীমান্তরক্ষীদের একটি টহল দল ভারতীয় অঞ্চলে প্রবেশের চেষ্টা করলে তাদের প্রতিরোধ করা হয়। ভারতীয় সেনাবাহিনীর

সূত্রের বরাত দিয়ে আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, গত সপ্তাহে বৈরী আবহাওয়ার সুযোগ নিয়ে চীনের একদল সেনা সিকিম সীমান্ত দিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করেছিল, কিন্তু ভারতীয় বাহিনীর বাধায় শেষ

পর্যন্ত পিছু হটে তারা। সংঘর্ষে উভয়পক্ষের বেশ কয়েকজন জওয়ান জখম হয়েছেন।

এ সময় দু’পক্ষের সংঘর্ষে চীনা বাহিনীর অন্তত ২০ জওয়ান জখম হন বলে ভারতীয় সেনা সূত্রটি জানিয়েছে। ভারতের দিকে জখম হন চার জওয়ান। এরপর চীনা সেনারা পিছু হটে। তার পর থেকে নকু

লা সীমান্ত এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত ভারত বা চীনের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘ বিতর্কিত সীমান্তের অংশীদার ভারত ও চীন।

উভয়পক্ষই দীর্ঘদিন ধরে একে অপরের নিয়ন্ত্রণে থাকা বিশাল এলাকার মালিকানা দাবি করে আসছে। দুই দেশের মধ্যবর্তী তিন হাজার ৪৪০ কিলোমিটার সীমান্ত নদী, হ্রদ ও তুষারঢাকা পবর্তমালার মধ্য

দিয়ে গেছে। প্রায়ই অনির্ধারিত সীমান্তরেখার কারণে দুই পক্ষের সেনারা পরস্পরের মুখোমুখি হয়ে পড়েন। কখনও কখনও সংঘর্ষেও জড়িয়ে পড়েন। সীমান্তে ছোটখাটো সংঘর্ষ সত্ত্বেও এই দুটি দেশ মাত্র একবার

১৯৬২ সালে যুদ্ধে জড়িয়েছিল। তখন ভারত শোচনীয় পরাজয় মেনে নিতে বাধ্য হয়েছিল।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..