প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সূচকের টানা পতনের দায় ছয় মৌলভিত্তির কোম্পানির 

নিজস্ব প্রতিবেদক: গতকাল বুধবার দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক কমেছে ৯৩ পয়েন্ট। সূচকের এমন পতনে মুখ্য ভ‚মিকায় ছিল ছয় কোম্পানি। এ ছয় কোম্পানির দায়ে ডিএসইর সূচকের পতন হয়েছে সাড়ে ৩১ পয়েন্ট, যা মোট পতনের ৩৪ শতাংশ। এ ছয় কোম্পানির মধ্যে রয়েছেÑওয়ালটন, ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো, গ্রামীণফোন, বেক্সিমকো লিমিটেড, বেক্সিমকো ফার্মা ও স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, গতকাল ওয়ালটন হাইটেকে সবচেয়ে বেশি সূচকের পতন হয়। ডিএসইর সূচক নামানোর ক্ষেত্রে কোম্পানিটির দায় ছিল ৭ দশমিক ৫৯ পয়েন্ট। কোম্পানিটির শেয়ারদর কমেছে ১ দশমিক ৫১ শতাংশ, যে কারণে ডিএসইর সূচক কমেছে ৭ দশমিক ৫৯ পয়েন্ট। সর্বশেষ কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ১০০ ৯২ টাকা ৮০ পয়সায়।

ডিএসইর সূচক পতনে দ্বিতীয় কোম্পানি ছিল গ্রামীণফোন লিমিটেড। কোম্পানিটির শেয়ারদর কমেছে শূন্য দশমিক ৯৫ শতাংশ। এতে ডিএসইর সূচক কমেছে ৫ দশমিক ৮৪ পয়েন্ট। সর্বশেষ কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৩০৪ টাকায়।

ডিএসইর সূচক পতনে তৃতীয় ছিল বেক্সিমকো লিমিটেড। কোম্পানিটির শেয়ারদর কমেছে ২ দশমিক ৮১ শতাংশ। এতে ডিএসইর সূচক কমেছে ৫ দশমিক ০১ পয়েন্ট। সর্বশেষ কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ১৩৪ টাকা ৯০ পয়সায়।

ডিএসইর সূচক পতনে চতুর্থ ছিল ব্রিটিশ আমেরিকান ট্যোবাকো বাংলাদেশ লিমিটেড। কোম্পানিটির শেয়ারদর কমেছে ১ দশমিক ০৭ শতাংশ। এতে ডিএসইর সূচক কমেছে ৪ দশমিক ৭৫ পয়েন্ট। সর্বশেষ কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৫৪৭ টাকা ৭০ পয়সায়।

ডিএসইর সূচক পতনে ৫ম ছিল বেক্সিমকো ফার্মাসিটিক্যালস লিমিটেড। কোম্পানিটির শেয়ারদর কমেছে ৪ দশমিক ০৭ শতাংশ। এতে ডিএসইর সূচক কমেছে ৪ দশমিক ২৬ পয়েন্ট। সর্বশেষ কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ১৫১ টাকায়।

ডিএসইর সূচক পতনে ষষ্ঠ ছিল স্কয়ার ফার্মাসিটিক্যাহলস লিমিটেড। কোম্পানিটির শেয়ারদর কমেছে ১ দশমিক ৩৬ শতাংশ। এতে ডিএসইর সূচক কমেছে ৩ দশমিক ৯৭ পয়েন্ট। সর্বশেষ কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২১৭ টাকা ৫০ পয়সায়।

প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৯৩ দশমিক ৫৮ পয়েন্ট বা ১ দশমিক ৪৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ছয়য় হাজার ৩০৯ দশমিক ৯১ পয়েন্টে। ডিএসইর এ সূচকটি কমে ১০ মাস তিন দিন বা ২০২ কার্যদিবস আগের অবস্থানে নেমেছে। এর আগে ২০২১ সালের ১৪ জুলাই সূচকটি ছয় হাজার ৩০৭ পয়েন্টে অবস্থান করছিল।

ডিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ্ সূচক ১৭ দশমিক ২৬ পয়েন্ট বা ১ দশমিক ২২ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ২৭ দশমিক ১৮ পয়েন্ট বা ১ দশমিক ১৪ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে এক হাজার ৩৯১ দশমিক ৫০ পয়েন্টে এবং দুই হাজার ৩৩৬ দশমিক ৪৮ পয়েন্টে।

ডিএসইতে  টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ৭৬২ কোটি ৯৩ লাখ টাকা, যা আগের কার্যদিবস থেকে ১৬ কোটি ৮৩ লাখ টাকা কম। আগের কার্যদিবস লেনদেন হয়েছিল ৭৭৯ কোটি ৭৬ লাখ টাকার।

ডিএসইতে গতকাল ৩৮১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৪২টির বা ১১ দশমিক ০২ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। দর কমেছে ৩১০টির বা ৮১ দশমিক ৩৬ শতাংশের এবং ২৯টির বা ৭ দশমিক ৬১ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটদর অপরিবর্তিত ছিল।