কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

সূচকের মিশ্র প্রবণতায় ডিএসইতে লেনদেন কমেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবসে সিংহভাগ শেয়ারের দর বাড়লেও সূচকের মিশ্র প্রবণতায় লেনদেন কমেছে। এদিন মোট ৩৫৭টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ১৮১টির এবং কমেছে ১০৬টির। বাকি ৭০টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ারদর অপরিবর্তিত ছিল। গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয় এক হাজার ২৯০ কোটি ৯০ লাখ ১৮ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ৫১৯ কোটি ৫৯ লাখ ৬৫ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। অর্থাৎ লেনদেন কমেছে ২২৮ কোটি ৬৯ লাখ ৪৭ হাজার টাকা। এদিন ৪০ কোটি ৬৬ লাখ ৮০ হাজার ৭০০টি শেয়ার এক লাখ ৯৬ হাজার ৬৪৩ বার হাতবদল হয়। গতকাল লেনদেনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত উত্থান-পতনের মধ্য দিয়ে লেনদেন হয়। অন্যদিকে চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) একই চিত্র দেখা গেছে।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১৯ দশমিক শূন্য আট পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৩২ শতাংশ বেড়ে পাঁচ হাজার ৮২০ দশমিক ৮০ পয়েন্টে পৌঁছায়। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক দুই দশমিক ১১ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ১৬ শতাংশ কমে এক হাজার ২৯১ দশমিক ৮৫ পয়েন্টে অবস্থান করে। অন্যদিকে ডিএস৩০ সূচক আট দশমিক ৩৬ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৩৮ শতাংশ বেড়ে দুই হাজার ২০৩ দশমিক ৩৯ পয়েন্টে স্থির হয়। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন ৩৪৬ কোটি ২৫ লাখ ৯২ হাজার টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে চার লাখ ৮৯ হাজার ৬৩৫ কোটি ৪৮ লাখ ৬৪ হাজার টাকায়।

গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে রবি আজিয়াটা লিমিটেড। কোম্পানিটির ১৪৬ কোটি ৮৩ লাখ ৫৯ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর এক টাকা ১০ পয়সা কমেছে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা বাংলাদেশ এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট কোম্পানি লিমিটেডের ১৩১ কোটি ১৭ লাখ ১৭ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির শেয়ারদর চার টাকা ৩০ পয়সা বেড়েছে। সামিট পাওয়ার লিমিটেডের ৭৭ কোটি ১৬ লাখ ৭৫ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারদর চার টাকা ৬০ পয়সা বেড়েছে।

এর পরের অবস্থানগুলোয় থাকা বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ৫৭ কোটি ৫৫ লাখ ৩০ হাজার টাকার, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেডের ৪২ কোটি ৬৫ লাখ ৭৮ হাজার টাকার, সিটি ব্যাংক লিমিটেডের ৩৭ কোটি ৬৮ লাখ ১৮ হাজার, আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেডের ৩৭ কোটি ৫৬ লাখ ৭০ হাজার, লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ লিমিটেডের ৩৩ কোটি ৬০ লাখ ৫০ হাজার, ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেডের ৩০ কোটি ৭০ লাখ ৪৮ হাজার টাকার এবং বাংলাদেশ ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট কোম্পানি লিমিটেডের ১৮ কোটি ৩৯ লাখ ৭৯ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

১০ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে ছিল অগ্রণী ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড। গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি  লিমিটেডের ১০ শতাংশ, প্রগতি ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের ১০ শতাংশ, প্রভাতী ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ৯ দশমিক ৯৮ শতাংশ, ঢাকা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ৯ দশমিক ৯৭ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে। ইসলামী ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ৯ দশমিক ৯৭ শতাংশ, ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের ৯ দশমিক ৯৫ শতাংশ, এশিয়া প্যাসিফিক জেনারেল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ৯ দশমিক ৯৫ শতাংশ, পিপলস ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ৯ দশমিক ৯৫ শতাংশ এবং রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের ৯ দশমিক ৯৪ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ১৬ দশমিক ৪০ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ১৬ শতাংশ বেড়ে ১০ হাজার ১৯৩ দশমিক ৩৪ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২৯ দশমিক ৮২ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ১৭ শতাংশ বেড়ে ১৬ হাজার ৮৯৬ দশমিক ২০ পয়েন্টে অবস্থান করে। সিএসইতে ২৭৮টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। দর বেড়েছে ১২৯টির, কমেছে ৯০টির এবং ৫৯টির দর অপরিবর্তিত ছিল। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৮৬ কোটি ৮৫ লাখ ৯১ হাজার ২৯৬ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৯৮ কোটি চার লাখ ৩২ হাজার ৪৭৩ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে ১১ কোটি ১৮ লাখ ৪১ হাজার ১৭৭ টাকার।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..