Print Date & Time : 13 April 2021 Tuesday 6:54 pm

সূচকের মিশ্র প্রবণতায় ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ২৪৫ কোটি টাকা

প্রকাশ: January 24, 2021 সময়- 11:33 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল রোববার সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে সিংহভাগ শেয়ারের দর কমায় সূচকের মিশ্র প্রবণতা দেখা গেছে। তবে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ২৪৫ কোটি টাকা বেড়েছে। এদিন মোট ৩৫৯টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ৭৯টির এবং কমেছে ২০২টির। বাকি ৭৮টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ারদর অপরিবর্তিত ছিল। গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয় এক হাজার ৪৫৮ কোটি ৬২ লাখ ৬৫ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ২১৩ কোটি ৪৫ লাখ ৫৮ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। অর্থাৎ লেনদেন বেড়েছে ২৪৫ কোটি ১৭ লাখ সাত হাজার টাকা। এদিন ৩৩ কোটি ৬১ লাখ ৯৩ হাজার ৪৬৯টি শেয়ার এক লাখ ৮৭ হাজার ৯৬৮ বার হাতবদল হয়। গতকাল লেনদেনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পতনের মধ্য দিয়ে লেনদেন হয়। অন্যদিকে চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) একই চিত্র দেখা গেছে।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২০ দশমিক ৬৩ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৩৫ শতাংশ কমে পাঁচ হাজার ৮১৫ দশমিক ৫৪ পয়েন্টে পৌঁছায়। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক ২ দশমিক ৬৮ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ২০ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ২৯৭ দশমিক ৩৩ পয়েন্টে অবস্থান করে। অন্যদিকে ডিএস৩০ সূচক এক দশমিক ৭৪ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক শূন্য সাত শতাংশ বেড়ে দুই হাজার ২১০ দশমিক ১৯ পয়েন্টে স্থির হয়। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন চার হাজার ছয় কোটি ৭৫ লাখ ৯৭ হাজার টাকা কমে দাঁড়িয়েছে চার লাখ ৮৮ হাজার ২৮২ কোটি ২৯ লাখ ২৪ হাজার টাকায়।

গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড। কোম্পানিটির ২৫৯ কোটি ৭১ লাখ সাত হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর ১০ টাকা ২০ পয়সা বেড়েছে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা বাংলাদেশ এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট কোম্পানি লিমিটেডের ১৭৪ কোটি এক লাখ ৭৪ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির শেয়ারদর ৫ টাকা ৬০ পয়সা বেড়েছে। লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেডের ১২৭ কোটি ৯৯ লাখ ৫৮ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারদর এক টাকা ৩০ পয়সা কমেছে।

এর পরের অবস্থানগুলোয় থাকা রবি আজিয়াটা লিমিটেডের ১০৮ কোটি ৬৫ লাখ ৬৭ হাজার টাকার, সামিট পাওয়ার লিমিটেডের ৬৪ কোটি সাত লাখ ৩৩ হাজার টাকার, সিটি ব্যাংক লিমিটেডের ২৬ কোটি ৬৪ লাখ ৫ হাজার, বারাকা পাওয়ার লিমিটেডের ২৬ কোটি ৫১ লাখ আট হাজার, জিবিবি পাওয়ার লিমিটেডের ২৪ কোটি ৪২ লাখ ৯৯ হাজার, লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ লিমিটেডের ২৩ কোটি ৩৮ লাখ ৭৫ হাজার টাকার এবং স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ২১ কোটি ৭৪ লাখ ৯১ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

৯ দশমিক ৯২ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে ছিল এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশন লিমিটেড। শাইনপুকুর সিরামিকসের ৯ দশমিক ২৯ শতাংশ, অগ্রণী ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ৮ দশমিক ৭৩ শতাংশ, জিবিবি পাওয়ার লিমিটেডের ৮ দশমিক ৩৩ শতাংশ, পিপলস ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ৮ দশমিক ১৫ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে। রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ৭ দশমিক ৭২ শতাংশ, কেডিএস অ্যাকসেসরিজ লিমিটেডের সাত দশমিক ৬৯ শতাংশ, নর্দার্ন ইসলামী ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের ৬ দশমিক ৮০ শতাংশ, জেএমআই সিরিঞ্জ অ্যান্ড মেডিকেল ডিভাইসেস লিমিটেডের ৬ দশমিক ৭৮ শতাংশ এবং বাংলাদেশ এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট কোম্পানি লিমিটেডের ৬ দশমিক ৭২ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ১৮ দশমিক ৬৯ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ১৮ শতাংশ কমে ১০ হাজার ২৫৩ দশমিক ৭৪ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩৪ দশমিক ৯২ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ২০ শতাংশ কমে ১৬ হাজার ৯৮৬ দশমিক ১৬ পয়েন্টে অবস্থান করে। সিএসইতে ২৫৩টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। দর বেড়েছে ৬৭টির, কমেছে ১৪৫টির এবং ৪১টির দর অপরিবর্তিত ছিল। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫৬ কোটি ৮৪ লাখ ৪৪ হাজার ৪১৯ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৫৮ কোটি ৩৩ লাখ ৬ হাজার ২৭০ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে এক কোটি ৪৮ লাখ ৬১ হাজার ৮৫১ টাকার।

সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে রবি আজিয়াটা লিমিটেড। কোম্পানিটির ১৪ কোটি ২১ লাখ ১০ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা বীকন ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ৫ কোটি এক লাখ ২০ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।