প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সূচক ও লেনদেনে পতন অব্যাহত

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল অধিকাংশ সূচক ও লেনদেনে পতনের মধ্য দিয়ে কার্যদিবস শেষ হয়। দেশব্যাপী পরিবহন ধর্মঘটের প্রভাবও বাজারে কিছুটা দেখা যায়। গতকাল লেনদেন আগের দিনের চেয়ে প্রায় ১৯০ কোটি টাকা কম হয়েছে।

তথ্যানুযায়ী, দিনশেষে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ১৫ দশমিক ৪৮ পয়েন্ট বা দশমিক ২৭   শতাংশ কমে পাঁচ হাজার ৫৯৭ দশমিক ২১ পয়েন্টে অবস্থান করে। ডিএসইএস বা শরিয়াহ সূচক দশমিক ১৫ পয়েন্ট বা দশমিক শূন্য এক শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৩০৫ দশমিক ৭৯ পয়েন্টে। আর ডিএস৩০ সূচক চার দশমিক ৫৬ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ২২ শতাংশ কমে অবস্থান করছে দুই হাজার ২১ দশমিক ২৫ পয়েন্টে।

ডিএসইতে গতকাল ৯৬১ কোটি ৯৭ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের দিনে লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ১৫২ কোটি ৪৪ লাখ টাকার। সেই হিসেবে লেনদেন কমেছে প্রায়  ১৯০ কোটি টাকা। এদিন ২৬ কোটি ৭৪ লাখ ৬৬ হাজার ৫২০টি শেয়ার এক লাখ ৫৪ হাজার ৫০৩ বার হাতবদল হয়।

দিনজুড়ে ডিএসইতে ৩২৮টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৯৬টির। কমেছে ১৭৭টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৫৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন ছিল তিন লাখ ৭৩ হাজার ১৭২ কোটি ৬২ লাখ ৪০ হাজার।

ডিএসইতে গতকাল দর বাড়ার শীর্ষে ছিল আইসিবি ফার্স্ট এনআরবি মিউচ্যুযাল ফান্ড। এর দর ছয় দশমিক ৬৬ শতাংশ বেড়ে সর্বশেষ দর হয় ২২ টাকা ৪০ পয়সা। এদিন ২৭৮ বারে ফান্ডটির ৩ লাখ ১৫ হাজার ৬০০টি ইউনিট লেনদেন হয়, যার বাজারদর ৬৯ কোটি ৪৩ লাখ  টাকা।

গেইনারের দ্বিতীয় স্থানে ছিল প্যাসিফিক ডেনিমস লিমিটেড। এই শেয়ারের দর পাঁচ দশমিক ৩২ শতাংশ বেড়ে প্রতিটি শেয়ারের সর্বশেষ দর হয় ২৭ টাকা ৭০ পয়সা। এদিন পাঁচ হাজার ৪৩৬ বারে কোম্পানির ৮২ লাখ ৪০ হাজার ৯১৫টি শেয়ার লেনদেন হয়, যার বাজারদর ২২ কোটি ৭৯ লাখ টাকা। তালিকার তৃতীয় স্থানে থাকা আইসিবি এমসিএল দ্বিতীয় মিউচুয়াল ফান্ডের দর ৪ দশমিক ৭০ শতাংশ বেড়েছে।

শীর্ষ তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলো হলো এমারেল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, ইফাদ অটোস, ন্যাশনাল টিউবস, গোল্ডেন হারভেস্ট অ্যাগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ, আরগন ডেনিম, সালভো ক্যামিক্যাল, পিপলস ইন্স্যুরেন্স।

দিনশেষে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি শেয়ার লেনদেন হয়েছে কেয়া কসমেটিকস লিমিটেডের। দিনজুড়ে কোম্পানিটির এক কোটি ২১ লাখ ৫০ হাজার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

লেনদেনে এর পরের অবস্থানে ছিল বেক্সিমকো, ফার ক্যামিকেল ইন্ডাস্ট্রিজ, সিএসসি কামাল.  সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইল, প্যাসিফিক ডেনিমস, প্রিমিয়ার লিজিং, সালভো ক্যামিক্যাল, অ্যাকটিভ ফাইন কেমিক্যালস ও জেনারেশন নেক্সট ফ্যাশন।

অন্যদিকে গতকাল চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ১০ দশমিক ৭৬ পয়েন্ট কমে ১০ হাজার ৫২৫ দশমিক ৪৯ পয়েন্টে অবস্থান করে। সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২০ দশমিক ৯০ পয়েন্ট কমে ১৭ হাজার ৩৫৪ দশমিক ৮২ পয়েন্টে অবস্থান করে।

সিএসইতে মোট ২৫৪টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে ৮০টির দর বেড়েছে। কমেছে ১৪৫টি প্রতিষ্ঠানের। দিনশেষে অপরিবর্তিত ছিল ২৯টি প্রতিষ্ঠানের দর।

সিএসইতে গতকাল ৫৪ কোটি ১৭ লাখ ২৯ হাজার ৬৯ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়।

সবচেয়ে বেশি শেয়ার লেনদেন হয়েছে কেয়া কসমেটিকস লিমিটেডের। দিনজুড়ে কোম্পানিটির ১৪ লাখ ২৯ হাজার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে এর পরের অবস্থানে ছিল প্যাসিফিক ডেনিমস, বেক্সিমকো , ফার কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ, প্রিমিয়ার লিজিং, ন্যাশনাল ব্যাংক, সালভো কেমিক্যাল, আরগন ডেনিম, জেনারেশন নেক্সট, ফ্যামিলি টেক্স।