প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সূচক ও শেয়ারদর বাড়লেও শীর্ষ খাতগুলোর লেনদেন আরও কমেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: চলতি সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবসে সব সূচকের উত্থানের মধ্য দিয়ে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন শেষ হয়েছে। এতে হতাশা কাটিয়ে আশাবাদী হচ্ছেন বিনিয়োগকারীরা। তবে সূচকের উত্থান হলেও টাকার অঙ্কে লেনদেন আরও কমেছে।

পুঁজিবাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, সোমবার প্রধান সূচক ১২০ পয়েন্ট হারিয়ে ৩৩ কার্যদিবস পরে সাত হাজার পয়েন্টের নিচে চলে যায়। গতকাল সেটি বেড়ে সূচক আবার সাত হাজারের ঘরে ফিরেছে। একই সময় শেয়ারদর বেড়েছে শীর্ষ খাতগুলোর সিংহভাগ কোম্পানির। তবে টাকার অঙ্কে লেনদেন ধারাবাহিকভাবে কমছে। গতকালও লেনদেন আগের কার্যদিবসের চেয়ে কমতে দেখা গেছে।

সূচকের উত্থানের মধ্যে গতকাল ডিএসইতে টাকার অঙ্কে এক হাজার ৩৮৬ কোটি ৯১ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। আগের দিনের চেয়ে লেনদেন কমেছে ৮৩ কোটি ৫১ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবস সোমবার লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ৪৭০ কোটি ৪৩ লাখ টাকার।

আগের কার্যদিবসের মতো গতকালও লেনদেনের শীর্ষে ছিল ওষুধ ও রসায়ন খাত। এ খাতে গতকাল ১৭৮ কোটি ৩০ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ২১৩ কোটি টাকার। গতকাল ১৩ দশমিক ৮১ শতাংশ অবদান রাখা এ খাতের ২৪টি কোম্পানির শেয়ারদর বৃদ্ধি পায়। এর বিপরীতে শেয়ারদর হ্রাস পায় পাঁচটির এবং অপরিবর্তিত ছিল একটি কোম্পানির।

ধারাবাহিকভাবে লেনদেনের দ্বিতীয় স্থানে ছিল ব্যাংক খাত। এ খাতে গতকাল ১৬১ কোটি ৪০ লাখ টাকার লেনদেন হয়। অবশ্য আগের কার্যদিবসে লেনদেন কম হয়েছিল। সোমবার এ খাতে লেনদেন হয় ১৪০ কোটি ৩৭ লাখ টাকার। গতকাল এ খাতের ২২টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারদর বৃদ্ধি পায়। দর কমে সাতটির এবং অপরিবর্তিত ছিল তিনটি প্রতিষ্ঠানের।

লেনদেনে তৃতীয় অবস্থানে ছিল বিবিধ খাত। গতকাল এ খাতে ১০০ কোটি ৮০ লাখ টাকার লেনদেন হয়, যা আগের দিনের চেয়ে কম। আগের দিন সোমবার এ খাতের লেনদেন ছিল ১১৯ কোটি ৯৬ লাখ টাকা। লেনদেন কমলেও গতকাল এ খাতের ১২টি কোম্পানির শেয়ারদর বৃদ্ধি ও একটির হ্রাস পায়।

পরের অবস্থানে থাকা বস্ত্র খাতের লেনদেন ছিল ১০০ কোটি চার লাখ। এ খাতের ৫৮টি কোম্পানির শেয়ারদর বৃদ্ধি পায় ও কমে মাত্র একটির।

পঞ্চম অবস্থানে থাকা প্রকৌশল খাতের লেনদেন ছিল ৯৪ কোটি ৮০ লাখ টাকা। ৪১টি কোম্পানির শেয়ারদর বাড়ার বিপরীতে মাত্র একটি কোম্পানির শেয়ারদর হ্রাস পায়। এছাড়া লেনদেনের শীর্ষ ছিল আর্থিক প্রতিষ্ঠান, জীবন বিমা, জ্বালানি, বিমা, খাদ্য প্রভৃতি খাত।

গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১২০ পয়েন্ট বেড়ে সাত হাজার পাঁচ পয়েন্টে, শরিয়াহ্ সূচক ডিএসইএস ১৬ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ৪৮২ পয়েন্টে এবং ডিএসই৩০ সূচক ১৭ পয়েন্ট বেড়ে দুই হাজার ৬৬১ পয়েন্টে অবস্থান করতে দেখা যায়।

গতকাল ডিএসইতে ৩৭৬টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে শেয়ারদর বেড়েছে ৩৪০টির, কমেছে ২২টির ও অপরিবর্তিত ছিল ১৪টি কোম্পানির।