Print Date & Time : 22 May 2022 Sunday 1:11 pm

স্পট মার্কেটে যাচ্ছে ফার্মা এইডস

নিজস্ব প্রতিবেদক: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ওষুধ ও রসায়ন খাতের কোম্পানি ফার্মা এইডসের শেয়ার আগামী রোববার থেকে স্পট মার্কেটে লেনদেন হবে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে জানা গেছে এ তথ্য।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, কোম্পানিটির লভ্যাংশ-সংক্রান্ত রেকর্ড ডেট নির্ধারিত হয়েছে আগামী ৭ নভেম্বর। তাই আগামী রবি ও সোমবার কোম্পানির শেয়ার স্পট মার্কেটে লেনদেন হবে। রেকর্ড ডেটের দিন শেয়ার লেনদেন বন্ধ থাকবে। রেকর্ড ডেট শেষ হওয়ার পরদিন থেকে শেয়ার লেনদেন স্বাভাবিক নিয়মেই চলবে।

কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ ৩০ জুন, ২০২১ সমাপ্ত হিসাববছরের আর্থিক প্রতিবেদন বিশ্লেষণ করে বিনিয়োগকারীর জন্য ৫০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৬ টাকা ১১ পয়সা। ৩০ জুন, ২০২১ তারিখে শেয়ারপ্রতি নেট সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৯৩ টাকা ২৬ পয়সা। এছাড়া এই হিসাববছরে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১০ টাকা সাত পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ৩০ ডিসেম্বর বেলা সাড়ে ১১টায় ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৭ ডিসেম্বর।

এদিকে সম্প্রতি প্রথম প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে কোম্পানিটি। প্রথম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর, ২০২১) কোম্পানিটির শেযারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে পাঁচ টাকা ১৫ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল চার টাকা এক পয়সা। ২০২১ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর তারিখে শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৯৮ টাকা ২৯ পয়সা। আর প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানির শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে তিন টাকা ৩৭ পয়সা, আগের বছরের একই সময়ে ছিল এক টাকা ৯৪ পয়সা।

সর্বশেষ কার্যদিবসে ডিএসইতে শেয়ারদর শূন্য দশমিক ১২ শতাংশ বা ৬০ পয়সা কমে প্রতিটি সর্বশেষ ৫০১ টাকা ৩০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ৫০০ টাকা ৬০ পয়সা। দিনভর শেয়ারদর ৪৯২ টাকা থেকে ৫০৫ টাকার মধ্যে ওঠানামা করে। দিনজুড়ে ২৭ হাজার ৪৫টি শেয়ার মোট ৪২৯ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর এক কোটি ৩৫ লাখ ১০ হাজার টাকা। গত এক বছরে শেয়ারদর ৩৭২ টাকা থেকে ৭১৬ টাকা ৫০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করে।

কোম্পানিটির মোট ৩১ লাখ ২০ হাজার শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের ২৪ দশমিক ২২ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে ৯ দশমিক ৮৮ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে রয়েছে ৬৫ দশমিক ৯০ শতাংশ শেয়ার।

ওষুধ ও রসায়ন খাতের কোম্পানিটি ১৯৮৭ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে বর্তমানে ‘এ’ ক্যাটেগরিতে লেনদেন হচ্ছে। পাঁচ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন তিন কোটি ১২ লাখ টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ ২২ কোটি ৬৪ লাখ টাকা।

সর্বশেষ বার্ষিক প্রতিবেদন ও বাজারদরের ভিত্তিতে শেয়ারের মূল্য আয় (পিই) অনুপাত ২৯ দশমিক ৭৬ এবং হালনাগাদ অনিরীক্ষিত ইপিএসের ভিত্তিতে ২৪ দশমিক ৩০।