স্বজনদের ফিরে পেতে চান বাকশ্রবণ প্রতিবন্ধী বৃদ্ধা

প্রতিনিধি, ফরিদপুর: ফরিদপুরের মধুখালীতে ঠিকানাহীন বাকশ্রবণ প্রতিবন্ধী এক বৃদ্ধ পথে পথে ঘুরে আশ্রয় নিয়েছেন গরিব কৃষকের বাড়িতে। ছেলেমেয়ে, আত্মীয়-স্বজন কে কোথায় কিছুই বলতে পারছেন না তিনি। বলতে পারছেন নাম-ঠিকানাও। মানুষ দেখলে শুধু ফ্যাল ফ্যাল করে তাকিয়ে থাকেন। হাতের ইশারা দিয়ে বোঝাতে চান ফিরে পেতে চান তার ঠিকানা।

মধুখালী উপজেলার বাগাট ইউনিয়নের চানপুর গ্রামের আশ্রয়দাতা মো. আকিদুল বলেন, বাকশ্রবণ প্রতিবন্ধী বৃদ্ধা নারীকে আগে কখনও দেখা যায়নি। কয়েক মাস আগে তিনি আমাদের বাড়ির বারান্দায় এসে উঠে কিন্তু নাম ও ঠিকানা কিছু বলতে পারেন না। সেই থেকে মানবিক দৃষ্টিতে আমার বাড়ি আশ্রয় দিয়েছি। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার পরিবারের ঠিকানা এখনও জানতে পারিনি। আমি স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, থানা ও সমাজসেবা অফিসে জানালেও এখন পর্যন্ত কর্তৃপক্ষ আমাকে কোনো সহায়তা প্রদান করেনি।

এ বিষয়ে মধুখালী থানার এসআই জুলহাস বলেন, আমি অভিযোগ পাওয়ার পরে বাড়িতে গিয়েছি। কিন্তু এটা আমাদের দায়িত্ব নয়। সমাজসেবায় যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

মধুখালী উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা কল্লোল সাহা বলেন, আমরা তার বিষয়ে জানতে পেরেছি। আমরা ১৮ বছর পর্যন্ত এ ধরনের ব্যক্তিদের সেবা দিতে পারি। কিন্তু ওনার বয়স ১৮ বছরের বেশি হওয়ায় আমাদের সেবার কোনো মাধ্যম নেই।

বাগাট ইউপি চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান জানান, বৃদ্ধ আমার ইউনিয়নের মো. আকিদুলের বাড়িতে থাকেন। আকিদুল অসহায় বাকশ্রবণ এই বৃদ্ধাকে আশ্রয় দিয়া অনেক বড় মনের কাজ করেছেন। আমি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে কিছু করার চেষ্টা করব।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন   ❑ পড়েছেন  ৯৪১  জন  

সর্বশেষ..