স্পোর্টস

স্বপ্ন পূরণ হলো না যুবাদের

ক্রীড়া ডেস্ক: টানা তিন ম্যাচ জিতে আগেই সিরিজ জয় নিশ্চিত হয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের। তাই লাল-সবুজ প্রতিনিধিদের স্বপ্ন ছিল পাঁচ ম্যাচ সিরিজের সব ম্যাচ হাসিমুখে নিয়ে নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করা। কিন্তু গতকাল চতুর্থ ম্যাচে হেরে যাওয়ায় একটু হলেও হতাশ হয়েছে জুনিয়র টাইগাররা।
গতকাল রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে পর চতুর্থ যুব ওয়ানডেতে ৪ উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশ। বার্ট সার্টক্লিফ ওভাল মাঠে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ২৯৫ রান তোলে জুনিয়র টাইগাররা। পরে অবশ্য আশা জাগিয়েও ৫ বল আগেই হেরে বসে সফরকারীরা। তারপরও পাঁচ ম্যাচ সিরিজে ৩-১ ব্যবধানে এগিয়ে লাল-সবুজ প্রতিনিধিরা।
চতুর্থ ওয়ানডেতে গতকাল আগে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের দুই ওপেনার তানজিদ হাসান ও পারভেজ হোসেনের পাশাপাশি হাফ সেঞ্চুরি করেন অধিনায়ক আকবর আলী ও তৌহিদ হƒদয়। শেষদিকে ঝড় তোলেন অধিনায়ক। ৪৪ বলে ৮ চার ২ ছয়ে ৬৬ রান করেন তিনি। তারপরও জুনিয়র টাইগাররা পারেনি ৩০০
ছাড়াতে। কিউই পেসার ডেভিড হ্যানকক তিন উইকেট নেন। অধিনায়ক জেসি ট্যাশকফ নেন দুই উইকেট।
গত তিন ম্যাচ বাংলাদেশ জিতেছিল পরে ব্যাট করে। কিন্তু গতকাল উল্টোটা হয়েছে। রান তাড়ায় শুরুতেই ভাঙে নিউজিল্যান্ডের উদ্বোধনী জুটি। দ্বিতীয় উইকেটে শতরানের জুটিতে দলকে দৃঢ় অবস্থানে নিয়ে যান ওলি হোয়াইট ও আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান ফার্গুস লেম্যান। ৬২ বলে ৪৫ রান করা হোয়াইটকে কট বিহাইন্ড করে ১২২ রানের জুটি ভাঙেন আসাদউল্লাহ গালিব। পরের ওভারে থামান ঝড় তোলা লেম্যানকে। ১০ চার ও ২ ছক্কায় ৭১ বলে ৭৬ রান করেন স্বাগতিকদের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। পরে উইলিয়াম ক্লার্কের সঙ্গে ৬৪ রানের জুটিতে দলকে কক্ষপথেই রাখেন টাসকফ। তারপরও এক পর্যায়ে ম্যাচে ফেরে বাংলাদেশ। কিন্তু শেষদিকে অশোক আর টাসকফ গলার কাঁটা হয়ে দেখা দেন সফরকারীদের। তারাই ৪৩ বলে ৫১ রানের সমীকরণ মিলিয়ে ফেলেন। তিন চারে ৭৭ বলে ৬৬ রানে অপরাজিত ছিলেন টাসকফ। অশোক করেন ২১ বলে ২৪ রান।
৭৮ রানে ৩ উইকেট নেন আসাদউল্লাহ গালিব। একটি করে উইকেট নেন শরিফুল ইসলাম ও অভিষেক দাস। আগামী রোববার একই ভেন্যুতে পঞ্চম ও শেষ যুব ওয়ানডেতে লড়বে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড।
সংক্ষিপ্ত স্কোর
বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল: ৫০ ওভারে ২৯৫/৮ (তানজিদ ৫১, পারভেজ ৫৫, মাহমুদুল ১৩, শাহাদাত ১২, হƒদয় ৭৩, আকবর ৬৬, শামিম ০, অভিষেক ১৩*, শরিফুল ০, মুরাদ ১*; হ্যানকক ৯-০-৭৩-৩, টাসকফ ১০-০-৩৯-২, অশোক ৬-০-৩৪-১, ম্যাকেঞ্জি ৯-১-৪৫-১, ফিল্ড ৯-১-৬৩-১)।
নিউজিল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দল: ৪৯.১ ওভারে ২৯৬/৪ (হোয়াইট ৪, ভিশভাকা ৮, লেম্যান ৭৬, ক্লার্ক ৩৪, টাসকফ ৬৬*, ম্যাকেঞ্জি ১৩, পোমার ১০, অশোক ২৪*; শরিফুল ১০-২-৪১-১, অভিষেক ১০-২-৪৮-১, শামিম ৬.১-০-৪৩-০, গালিব ৯-০-৭৮-৩, হƒদয় ৪-০-২৯-০, মুরাদ ১০-০-৫১-০)।
ফল: নিউজিল্যান্ড ৪ উইকেটে জয়ী।
সিরিজ: ৫ ম্যাচের সিরিজে ৩-১ ব্যবধানে বাংলাদেশ এগিয়ে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..