শোবিজ

স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে রানী আহাদ

শোবিজ ডেস্ক: মডেল ও ছোটপর্দার অভিনেত্রী রানী আহাদ। এবার প্রথমবারের মতো একটি বিশেষ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে কাজ করলেন তিনি। নতুন বছরের মার্চে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপন শুরু হবে। সে উপলক্ষে ‘জনক ও সন্তান’ শিরোনামের এ চলচ্চিত্রটি তৈরি করা হয়েছে। পরিচালনা করেছেন মুক্তিযোদ্ধা নূর মোহাম্মদ মনি। এর কাহিনি লিখেছেন শোয়েব চৌধুরী। সংলাপ রচনা ও চিত্রনাট্য করেছেন ফেরারী ফরহাদ। এরই মধ্যে রাজধানীর ৩০০ ফুট এলাকায় একটি শুটিং বাড়িতে ও বাড়ির আশেপাশের বিভিন্ন এলাকায় চলচ্চিত্রটির দৃশ্যধারণের কাজ শেষ হয়েছে। বীরাঙ্গনার চরিত্রে অভিনয় করেছেন রানী আহাদ ও শিক্ষকের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন আহসান হাবিব নাসিম। মুক্তিযুদ্ধ-পরবর্তী সময়ে একজন বীরাঙ্গনার বঙ্গবন্ধুকে কাছে থেকে দেখার আগ্রহকে নিয়েই এ চলচ্চিত্রের গল্প এগিয়ে যায়। একদিন খবরের কাগজে বীরাঙ্গনার বঙ্গবন্ধুকে দেখার আগ্রহের খবর প্রকাশিত হয়। শিক্ষক তাকে সহযোগিতা করেন বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করার জন্য। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে সেই বীরাঙ্গনার দেখা হয় না। চলচ্চিত্রে অভিনয় প্রসঙ্গে রানী আহাদ বলেন, এ ধরনের একটি ঐতিহাসিক কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকতে পেরে আমি খুব আনন্দিত। এবারই প্রথম আমি একজন শ্রদ্ধেয় বীরাঙ্গনার চরিত্রে অভিনয় করেছি। তিনি আরও বলেন, অনেক জ্বর নিয়ে শুটিং করেছি। তাই অভিনয় করতে গিয়ে চরিত্রটি ফুটিয়ে তুলতে আমাকে অনেক কষ্ট হয়েছে। তাছাড়া এ কাজ করে বুঝতে পেরেছি সে সময় মানুষের জীবন কতটা কষ্টের ছিল, বিশেষত একজন বীরাঙ্গনার জীবন ছিল কতটা চ্যালেঞ্জিং! সেটা অনুভব করেছি। আমার অভিনয় জীবনের এ এক অন্যরকম অর্জনও বটে। ধন্যবাদ শ্রদ্ধেয় নূর মোহাম্মদ মনিসহ সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা। আহসান হাবিব নাসিম বলেন, ধন্যবাদ জানাই মুক্তিযোদ্ধা নূর মোহাম্মদ মনি ভাইকে, আমাকে এমন একটি কাজে সম্পৃক্ত থাকার সুযোগ সৃষ্টি করে দেওয়ার জন্য। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েই এ চলচ্চিত্রটি নির্মিত হয়েছে। চলচ্চিত্রটিতে আরও অভিনয় করেছেনÑমাহমুদুল ইসলাম মিঠু, রেশমী, মো. ইকবাল, বিনয় ভদ্রসহ অনেকে। এটি মার্চে এনটিভিতে প্রচার করা হবে। প্রসঙ্গত, এর আগে ‘ফেরারি প্রেম’-এ নবাগত নায়ক আজাদের বিপরীতে অভিনয় করেছেন রানী আহাদ।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..