সুস্বাস্থ্য

স্বাস্থ্য খাতে নতুন দিগন্ত উম্মোচন করবে ৫জি

স্বাস্থ্য খাতে নতুন দিগন্ত উম্মোচন করবে ৫জি প্রযুক্তি। আধুনিক জরুরি চিকিৎসাসেবার ভিত্তি হিসেবে কাজ করবে ৫জি। এতে থাকবে কানেক্টেড অ্যাম্বুলেন্স ও আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (এআই) সাপোর্টেড অ্যাপ এআর, ভিআর ও ড্রোন।
সম্প্রতি চীনের চেংদুতে অনুষ্ঠিত হওয়া পঞ্চম হুয়াওয়ে এশিয়া-প্যাসিফিক ইনোভেশন ডে ইভেন্টে প্রদর্শিত তথ্যে স্বাস্থ্য খাতের এ নতুন সম্ভাবনার কথা উঠে এসেছে।
কোনো রোগী যখন ৫জি-সংযুক্ত অ্যাম্বুলেন্সে উঠবেন, কর্তব্যরত চিকিৎসক অ্যাম্বুলেন্সে থাকা চিকিৎসা উপকরণ দিয়ে রক্ত, ইসিজি অথবা বি-মোড স্ক্যানের মতো পরীক্ষাগুলো সম্পন্ন করতে পারবেন। এছাড়া একই সময়ে আহত ব্যক্তির প্রয়োজনীয় তথ্যাদি, যেমন স্ক্যানকৃত ছবি, মেডিক্যাল সাইন ও মেডিক্যাল রিপোর্ট হাসপাতালে পাঠানো যাবে। ফলে চিকিৎসকরা দ্রুততম সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়াসহ অপারেশনের জন্য প্রস্তুতি নিতে পারবেন। ফলে বাঁচবে সময়, যা চিকিৎসাসেবায় সাফল্যের হার বৃদ্ধি করবে।
অনুষ্ঠানে এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের দেশগুলো থেকে সরকার, ইন্ডাস্ট্রি ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ২০০ জনের বেশি প্রতিনিধি অংশ নেন। তারা স্বাস্থ্য খাতে ৫জি প্রযুক্তির প্রণয়ন ও উন্নয়নের পাশাপাশি, সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট, প্রযুক্তি, মানবতা ও পরিবেশসংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।
২০১৩ সাল থেকে বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন শহরে হুয়াওয়ে ইনোভেশন ডে আয়োজিত হয়েছে। শহরগুলোর মধ্যে রয়েছে লন্ডন, মিলান, প্যারিস, সিঙ্গাপুর সিটি, সিডনি, কুয়ালালামপুর, ব্যাংকক, দুবাই ও সাও পাওলো। ওপেননেস, ইনোভেশন, কোলাবোরেশন ও শেয়ার্ড সাকসেস এ চারটি ধারায় বিশ্বাসী হুয়াওয়ে বিশ্বের সব মানুষ, বাড়ি ও সংস্থার মাঝে ডিজিটাল ব্যবস্থার প্রণয়ন করতে চায়, যা একটি সম্পূর্ণ কানেক্টেড ইন্টিলিজেন্ট বিশ্ব গঠনে সহায়তা করবে।

 

সর্বশেষ..