বিশ্ব প্রযুক্তি

স্মার্টফোন সরবরাহে শীর্ষ পাঁচ কোম্পানি

শেয়ার বিজ ডেস্ক : চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) বিশ্বব্যাপী স্মার্টফোনের সরবরাহ ৩৭ কোটি ৩১ লাখ ইউনিটে পৌঁছেছে, যা গত বছরের একই প্রান্তিকের তুলনায় দুই দশমিক সাত শতাংশ বেশি। সম্প্রতি প্রকাশিত বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল  ডেট করপোরেশনের (আইডিসি) এক প্রতিবেদনে এমন তথ্যই উঠে এসেছে।

আইডিসির তথ্যমতে, তৃতীয় প্রান্তিকে ডিভাইস সরবরাহে শীর্ষ অবস্থান ধরে রেখেছে দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক স্যামসাং। এছাড়া শীর্ষ পাঁচ কোম্পানির সবকটিই ইতিবাচক প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে। এর মধ্যে সবচেয়ে ভালো প্রবৃদ্ধি করেছে চীনের শাওমি। এক বছর আগের তুলনায় গত প্রান্তিকে শাওমির বিক্রি বেড়েছে দ্বিগুণ। বিশেষ করে এশিয়া প্যাসিফিকের বাজারে ভালো করেছে কোম্পানিটি।

প্রতিবেদনমতে, বাজারে শীর্ষে থাকা স্যামসাং গত প্রান্তিকে স্মার্টফোন সরবরাহ করেছে আট কোটি ৩৩ লাখ ইউনিট, যা গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ৯ দশমিক পাঁচ শতাংশ বেশি। কোম্পানির ফ্ল্যাগশিপ ফোন গ্যালাক্সি নোট ৮-এর কাটতি ভালো যাচ্ছে বাজারে।

দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাপল গত প্রান্তিকে চার কোটি ৬৭ লাখ ইউনিট স্মার্টফোন সরবরাহ করেছে। নতুন আইফোন ৪-এর কল্যাণে গত বছরের এ সময়ের তুলনায় কোম্পানিটির প্রবৃদ্ধি হয় দুই দশমিক তিন শতাংশ। ২০১৬ সালের তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানি চার কোটি ৫৫ মিলিয়ন ইউনিট স্মার্টফোন বাজারে সরবরাহ করে।

তৃতীয় অবস্থানে থাকা চীনের হুয়াওয়ে গত প্রান্তিকে তিন কোটি ৯১ মিলিয়ন ইউনিট স্মার্টফোন বাজারে সরবরাহ করে, যা গত বছরের এ সময়ের চেয়ে ১৬ দশমিক এক শতাংশ বেশি। কোম্পানিটি বড় সাফল্য পেয়েছে মেট-৯ এবং পি-১০ স্মার্টফোনের কল্যাণে।

বাজারে চতুর্থ স্থানে থাকা চীনের অপো সরবরাহ করে তিন কোটি ৭০ হাজার লাখ ইউনিট স্মার্টফোন, যার প্রবৃদ্ধি গত বছরের তৃতীয় প্রান্তিকের চেয়ে ১৯ শতাংশ।

পঞ্চম অবস্থানে থাকা শাওমি সরবরাহ করে দুই কোটি ৭৬ লাখ ইউনিট স্মার্টফোন। এক বছর আগের এ সময়ের তুলনায় এটি দ্বিগুণ। কেম্পানিটি ২০১৬ সালের তৃতীয় প্রান্তিকে সরবরাহ করেছিল এক কোটি ৩৬ লাখ ইউনিট স্মার্টফোন।

আইডিসির মতে, স্মার্টফোন শিল্প ধারাবাহিক প্রবৃদ্ধি করছে, তবে তা আগের বছরগুলোর চেয়ে অনেকটা শ্লথগতিতে। এ ছাড়া শীর্ষ পাঁচ কোম্পানি স্যামসাং, অ্যাপল, হুয়াওয়ে, অপো ও শাওমির বাইরে থাকা অন্য স্মার্টফোন কোম্পানিগুলো অনেকটা টিকে থাকার লড়াইয়ে রয়েছে।

 

 

 

সর্বশেষ..