প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে হাইটেক পার্ক হবে অর্থনীতির চালিকাশক্তি

জামালপুরে জুনায়েদ আহমেদ পলক

প্রতিনিধি, জামালপুর: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশের আধুনিক রূপ স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে হাইটেক পার্ক হবে মূল অর্থনীতির চালিকাশক্তি। বাংলাদেশে সাড়ে ৪ হাজার ইউনিয়নে ডিজিটাল সেন্টার স্থাপন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এখন ১৩ কোটি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী সৃষ্টি হয়েছে। ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত আইসিটি বিষয় বাধ্যতামূলক করায় এখন সাড়ে ৬ লাখ ফ্রিল্যান্সার তৈরি হয়েছে।

তিনি বলেন, তরুণরা যেন শুধু সনদনির্ভর শিক্ষায় শিক্ষিত না হয়ে প্রযুক্তি শিক্ষায় দক্ষ মানবসম্পদে পরিণত হতে পারে সে জন্য সারাদেশে ৬৪টি শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ইনকুবেশন সেন্টার, ১২টি হাইটেক পার্ক ও ছোট-বড় মিলিয়ে ৯২টি হাইটেক পার্ক নির্মাণ করা হচ্ছে। গতকাল শনিবার জামালপুরের মুকন্দবাড়ী এলাকায় হাইটেক পার্ক নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকালে এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন, জামালপুর হাইটেক পার্কে প্রতি বছর ৩ হাজার তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। ১ হাজার জনকে সরাসরি প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। এখানে হাইস্পিড ইন্টারনেন্ট, নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ ও আন্তর্জাতিক মানের কর্ম পরিবেশ পাবে। এখানে বসেই ইউরোপ আমেরিকার বড় বড় কোম্পানিতে কাজ করতে পারবে তরুণরা।

পরে জেলা শিল্পকলা একাডেমির বীর মুক্তিযোদ্ধা গীতিকার নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে এ উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। স্থানীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা ইঞ্জিনিয়ার মোজাফফর হোসেনের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য মির্জা আজম, জেলা প্রশাসক শ্রাবস্তী রায়, জেলা পরিষদ প্রশাসক ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহ প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, ১৫৩ কোটি টাকা ব্যয়ে হাইটেক পার্কটি নির্মাণে সময় লাগবে দুই বছর।