টেলকো টেক

স্যামসাংয়ের দুই স্যামসাং ইলেকট্রনিকসের এন্টারপ্রাইজ ইভিনিং

সম্প্রতি রাজধানীর একটি হোটেলে দেশের সরকারি-বেসরকারি নানা সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, সুপরিচিত স্থপতি ও পরামর্শকদের উপস্থিতিতে ‘স্যামসাং এন্টারপ্রাইজ ইভিনিং, ২০১৯’ অনুষ্ঠিত হয়ে গেল। এর আয়োজন করেছে স্যামসাং ইলেকট্রনিকস বাংলাদেশ। স্যামসাংয়ের এন্টারপ্রাইজ সল্যুশনগুলো নানা প্রতিষ্ঠানের সফল কার্যক্রম পরিচালনায় সহায়ক হিসেবে কাজ করে। ব্যবসায়িক নেতা ও বিশেষজ্ঞদের সামনে এ বিষয়টি তুলে ধরাই ছিল এ অনুষ্ঠানের প্রধান উদ্দেশ্য।

অনুষ্ঠানে স্যামসাং বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক স্যাংওয়ান ইউন ও হেড অব কাস্টমার স্যাটিসফেকশন হে ডাক লী, স্যামসাং কনজ্যুমার ইলেকট্রনিকসের হেড অব বিজনেস শাহরিয়ার বিন লুৎফর, বি২বি সেলস গ্রুপের প্রিন্সিপাল প্রফেশনাল জুসুন লি, বি২বি লিড মোবাইল ডিভিশনের সাইফ উদ্দিন আহমেদ, সামিউল মাসুক ও মাহবুবুল আকরামসহ প্রতিষ্ঠানটির স্থানীয় ব্যবসায়িক অংশীদাররাও উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে মাল্টিটাস্কিং বা একসঙ্গে অনেক কাজ করার লক্ষ্যে নির্মিত ৪৯ ইঞ্চি সুপার আল্ট্রাওয়াইড কিউএলইডি মনিটর থেকে শুরু করে বিশ্বের প্রথম ৩৬০ ক্যাসেট এয়ার কন্ডিশনারসহ অনেক এন্টারপ্রাইজ-সম্পর্কিত প্রযুক্তিপণ্য প্রদর্শন করা হয়। স্যামসাং ফ্লিপ, স্মার্ট সাইনেজ, ভিআরএফ ও হসপিটালিটি ডিসপ্লেও প্রদর্শিত হয়। এছাড়া শক্তিশালী ডেটা নিরাপত্তা নিশ্চিতকারী সল্যুশন ‘স্যামসাং নক্স’রও প্রদর্শন করে স্যামসাংয়ের মোবাইল বিজনেস ইউনিট।

স্যাংওয়ান ইউন বলেন, প্রতিনিয়ত উদ্ভাবনী সমাধান ও উম্মুক্ত অংশীদারিত্বমূলক ইকোসিস্টেমের মাধ্যমে এন্টারপ্রাইজ ইলেকট্রনিকসের বাজারে এগিয়ে যাচ্ছে স্যামসাং।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সাল থেকে বাংলাদেশে ব্যবসা পরিচালনা করছে বিশ্বখ্যাত প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান স্যামসাং ইলেকট্রনিকস। দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক এ প্রতিষ্ঠানটি মোবাইল ফোন ও কনজ্যুমার ইলেকট্রনিকস পণ্য উভয় ক্ষেত্রে বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে সুপরিচিত।

সর্বশেষ..