বিশ্ব সংবাদ

হংকংয়ে সরকারবিরোধী বিক্ষোভে পর্যটন খাতে ধস

শেয়ার বিজ ডেস্ক: হংকংয়ে চলমান সরকারবিরোধী আন্দোলনের ফলে সেখানকার পর্যটন ব্যবসায় ধস নেমেছে। বিদায়ী ২০১৯ সালের দ্বিতীয়ার্ধে ওই অঞ্চলে পর্যটক গমন অন্তত ৪০ শতাংশ কমে গেছে। হংকং ট্যুরিজম বোর্ড এ তথ্য প্রকাশ করে জানিয়েছে, গত বছরের জুলাই থেকে আন্দোলনের কারণে এশিয়ার অর্থনৈতিক কেন্দ্রটিতে পর্যটক আগমন কমা শুরু হয়। তবে চলতি বছর পর্যটক বাড়াতে নানা ধরনের পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানিয়েছে সেখানকার সরকার। খবর: আরব নিউজ।

প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, গত বছরের শেষ ছয় মাসে আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় হংকংয়ে পর্যটকের সংখ্যা ৩৯ শতাংশ কমেছে। আর বছরজুড়ে পর্যটক আগমন কমেছে ১৪ শতাংশ। বছরের মাঝামাঝি সময়ে বিক্ষোভ শুরু হলে পুলিশ ব্যাপকহারে গ্রেপ্তার শুরু করে। ফলে সেখানে আন্দোলন আরও গতি পায়। পরে নভেম্বরে স্থানীয় নির্বাচনে জয়লাভ করার পর বিক্ষোভকারীরা আরও বলীয়ান হয়ে ওঠে।

হংকংয়ে সরকারবিরোধী আন্দোলন শুরু করার পর ওই অঞ্চলের অর্থনীতি মন্দাবস্থার মধ্যে পড়ে গেছে। এমনকি একসময়কার সবচেয়ে নিরাপদ শহরের তকমাও হারিয়েছে। ১৯৯৭ সালের ব্রিটিশ কলোনি থেকে মুক্ত হওয়ার পর চীনের নিয়ন্ত্রণে আসে হংকং। তবে তারা চীনের কর্তৃত্বপরায়ণতা থেকে মুক্তি পাওয়ার লক্ষ্যে এ আন্দোলন শুরু করে, যদিও বিতর্কিত যে বহিঃসমর্পণ আইনের কারণে ওই আন্দোলন শুরু হয়, তা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে। তবে গণতন্ত্র ও পুলিশের ভূমিকার তদন্তের দাবিতে আন্দোলন আরও বেগবান হয়েছে।

হংকংয়ের অর্থনৈতিক সচিব পল চ্যান এক অনুষ্ঠানে বলেন, ওই অঞ্চলের অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি ২০১৯ সালে মাইনাস এক দশমিক তিন শতাংশে দাঁড়াতে পারে। এটি বাণিজ্য, ভ্রমণ ও বিনিয়োগ কেন্দ্রটির জন্য বিশাল লোকসান বলে উল্লেখ করেন তিনি। উল্লিখিত সময়ে পর্যটন, ক্যাটারিং ও খুচরা ব্যবসা সবচেয়ে বড় লোকসানের মুখে পড়েছে। গত অক্টোবর ও নভেম্বরে আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় দোকানগুলোর আয় অন্তত ২৬ শতাংশ কমে গেছে।

তবে পর্যটন বোর্ডের চেয়ারম্যান ওয়াই কে প্যাং আশা প্রকাশ করে বলেছেন, বিশ্বমানের ভ্রমণ গন্তব্য হিসেবে হংকংয়ের স্থিতিশীলতা ও আবেদন রয়েছে। সে দৃষ্টিকোণ থেকে ওই অঞ্চলের হোটেল, ফ্লাইট, কেনাকাটা ও অন্যান্য দৃষ্টিনন্দন স্থাপনার জন্য নতুন করে বিশেষ প্রচারণা চালানোর পাশাপাশি নানা ধরনের ছাড় দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছে হংকংয়ের ট্যুরিজম বোর্ড।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..