কোম্পানি সংবাদ বাজার বিশ্লেষণ

হাইডেলবার্গ সিমেন্টের লেনদেন চালু আজ

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: হাইডেলবার্গ সিমেন্ট বাংলাদেশ লিমিটেডের শেয়ার লেনদেন চালু হচ্ছে আজ। গতকাল রেকর্ড ডেটের কারণে কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন বন্ধ ছিল। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

উল্লেখ্য, কোম্পানিটি ১৯৮৯ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ সমাপ্ত হিসাববছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে কোম্পানিটি ৩০০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এ সময় কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৬ টাকা ৬৯ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৯৮ টাকা ৯৬ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল যথাক্রমে ২৪ টাকা ৮১ পয়সা ও ১০২ টাকা ২৭ পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ১১ মে সকাল ১১টায়, কারখানা প্রাঙ্গণে (টাটলি যাত্রামোড়া, তারাবো, রূপগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ) বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে।

৩১ ডিসেম্বর ২০১৫ সমাপ্ত হিসাববছরে কোম্পানিটি ৩০০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। এ সময় কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ২৪ টাকা ৮১ পয়সা এবং এনএভি ১০২ টাকা ২৭ পয়সা। যা আগের বছর একই সময় ছিল যথাক্রমে ২০ টাকা ৮৮ পয়সা ও ১১৫ টাকা ৪৬ পয়সা।

কোম্পানির ১০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ৫৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ ৫২১ কোটি ৩৮ লাখ টাকা।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ’১৬)  ইপিএস হয়েছে চার টাকা ৭৪ পয়সা এবং কর-পরবর্তী মুনাফা করেছে ২৫ কোটি ২৫ লাখ ৩০ হাজার টাকা।  দ্বিতীয় প্রান্তিকে ইপিএস হয়েছে আট টাকা ৯৯ পয়সা এবং মুনাফা হয়েছে ৫০ কোটি আট লাখ টাকা, প্রথম প্রান্তিকে ইপিএস হয়েছিল ১০ টাকা ৩০ পয়সা আর মুনাফা ছিল ৫৮ কোটি ২১ লাখ ৮০ হাজার টাকা।

কোম্পানির মোট পাঁচ কোটি ৬৫ লাখ তিন হাজার ৫৮০টি শেয়ার রয়েছে। মোট শেয়ারের মধ্যে ৬০ দশমিক ৬৭ শতাংশ উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী ২৬ দশমিক ৫০ শতাংশ, বিদেশি বিনিয়োগকারী এক দশমিক ৭৯ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে ১১ দশমিক শূন্য চার শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

 

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..