বিশ্ব সংবাদ

হাজারো চীনা অ্যাকাউন্ট বন্ধ করল ফেসবুক-টুইটার

হংকংয়ের বিক্ষোভ নিয়ে গুজব

শেয়ার বিজ ডেস্ক: হংকংয়ের আন্দোলনের বিরুদ্ধে চীন সরকারের অপপ্রচারের সঙ্গে যুক্ত বেশ কিছু অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে ফেসবুক ও টুইটার। সমন্বিত অপপ্রচার কৌশলের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে দুই লাখ টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার কথা বলেছে টুইটার কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যে ৯৩৬টি অ্যাকাউন্ট সরাসরি চীনের। ফেসবুকের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, চীনের সাতটি পেজ, তিনটি গ্রুপ ও পাঁচটি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হয়েছে। হংকংয়ের আন্দোলন নিয়ে ভুয়া খবর ছড়ানোর অভিযোগে এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। খবর: বিবিসি।
টুইটারের এক ব্লগ পোস্টে বলা হয়েছে, হংকংয়ে আন্দোলনের বিরুদ্ধে ইচ্ছাকৃতভাবে এবং বিশেষভাবে রাজনৈতিক বক্তব্য ওই অ্যাকাউন্টগুলো থেকে প্রকাশ করা হচ্ছিল। চীনে টুইটার বন্ধ হলেও অনেকেই ভিপিএন ব্যবহার করে টুইটার ব্যবহার করেন। স্প্যাম, ভুয়া অ্যাকাউন্ট, সহিংস কনটেন্টসহ টুইটারের নানা নীতিমালা ভাঙায় এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।
বিতর্কিত অপরাধী প্রত্যর্পণ বিল ইস্যুতে শুরু হওয়া বিক্ষোভে এখন উত্তাল গোটা হংকং। নিজেদের অধিকার আদায়ে এখন হংকংয়ের পথে লাখ লাখ গণতন্ত্রকামী মানুষ। যাদের অংশগ্রহণে এ বিক্ষোভ মোড় নিয়েছে স্বাধীনতার আন্দোলনে। নিজেদের আধা-স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলে চলমান গণতন্ত্রকামীদের এ আন্দোলন ঠেকাতে এখন পর্যন্ত নানা পদক্ষেপ নিয়েছে চীন, দিয়েছে হুশিয়ারিও। এরপরও থেমে নেই গণতন্ত্রকামীদের আন্দোলন। ভয় পেয়ে পিছিয়ে যাওয়া তো দূরের কথা, বরং দিন দিন আন্দোলনকারীর সংখ্যা আরও বাড়ছে। এর মধ্যেই এ আন্দোলন নিয়ে চলছে নানা ষড়যন্ত্র। আন্দোলন নিয়ে ‘ভুল তথ্য’ ছড়ানো হচ্ছে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও।
টুইটার কর্তৃপক্ষ জানায়, বন্ধ করে দেওয়া ওই অ্যাকাউন্টগুলো মূলত চীনা নাগরিকদের। সেগুলো ব্যবহার করেই হংকং আন্দোলনের ‘বৈধতা ও রাজনৈতিক অবস্থান’-এর ক্ষতির প্রচেষ্টাই চালানো হচ্ছিল। ওই ৯৩৬ অ্যাকাউন্ট ছাড়াও আরও অন্তত দুই লাখ অ্যাকাউন্ট সক্রিয় হওয়ার আগেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে টুইটার। কারণ, ওই অ্যাকাউন্টগুলোও হংকং আন্দোলন নিয়ে ‘ভুল তথ্য’ ছড়ানোর উদ্দেশ্যেই খোলা হচ্ছিল। ‘এ কাজগুলো চীনের সমর্থনেই করা হচ্ছে’ এমনটিই বেরিয়ে এসেছে টুইটার কর্তৃপক্ষের তদন্তে। এটির পক্ষে যথেষ্ট প্রমাণও তাদের হাতে রয়েছে বলে জানিয়েছে টুইটার। এছাড়া ভবিষ্যতেও এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে তারা জানিয়েছে।
অন্যদিকে টুইটার কর্তৃপক্ষের এমন পদক্ষেপের পর থেমে নেই ফেসবুক কর্তৃপক্ষও। তারাও ফেসবুক থেকে সাতটি পেজ, তিনটি গ্রুপ ও পাঁচটি অ্যাকাউন্ট সরিয়ে নিয়েছে।

 

সর্বশেষ..