প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

হাফ ভাড়া দিলে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করা হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের সড়ক, রেল ও নৌপথে সব শ্রেণির গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়ার সুযোগ দেয়ার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি।

পাশাপাশি অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের নৈরাজ্য থেকে মুক্তি দিতে সরকার নির্ধারিত ভাড়া কার্যকর করার দাবি জানানো হয়। গতকাল ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সামনে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী এ দাবি জানান।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের পর প্রথমে সড়ক পরিবহনমন্ত্রী সারাদেশে বিআরটিসি বাস, পরে বাস মালিক সমিতি ঢাকা মহানগরীতে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া সুবিধা দেয়ার ঘোষণা দেয়। কিন্তু তা এখনও পুরোপুরি কার্যকর হয়নি।

যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব অভিযোগ করে বলেন, কোনো বাসে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া নেয়া হলে তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করা হচ্ছে। তিনি শিক্ষার্থীসহ সব যাত্রীর সম্মানের সঙ্গে গণপরিবহনে যাতায়াতের সুযোগ নিশ্চিত করার দাবি জানান।

মোজাম্মেল হক চৌধুরী আরও বলেন, সড়কে অব্যবস্থাপনার জন্য পরিবহন সেক্টরে যারা নেতৃত্ব দিচ্ছেন তারাই দায়ী। এ সেক্টরের ইতিবাচক পরিবর্তনের জন্য বর্তমানে নেতৃত্বদানকারী পরিবহন মালিক-শ্রমিক নেতৃত্বের পরিবর্তন জরুরি।

সড়কে শৃঙ্খলা আনতে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি ২০ দফা সুপারিশমালা পেশ করে। যার মধ্যে রয়েছে সার্বক্ষণিক আইডি কার্ড প্রদর্শন সাপেক্ষে দেশের সব শ্রেণির গণপরিবহনে হাফ ভাড়া সুবিধা দেয়া, গণপরিবহন দৈনিক চুক্তিতে ইজারা দেয়া বন্ধ করা, গণপরিবহনে কার্ড দৃশ্যমান রাখা, মালিকদের ইচ্ছামতো ভাড়া আদায় বন্ধ করে সরকার নির্ধারিত ভাড়ার তালিকা অনুযায়ী কিলোমিটারপ্রতি ভাড়া আদায় নিশ্চিত করা, নারী যাত্রীদের কটূক্তি ও যৌন হয়রানিমুক্ত যাতায়াত ব্যবস্থা গড়ে তোলা প্রভৃতি।