প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

হ া ও য় া ব দ ল: চাঁদপুর

মেঘনাকন্যা চাঁদপুর। রূপসী চাঁদপুরও বলা হয় এ জেলাকে। আবার কেউ কেউ বলেন, ইলিশের দেশ চাঁদপুর ইলিশ আর চাঁদপুর যেন হরিহর আত্মা। এভাবে বহু জনশ্রুতি, নানা ভাবনায় দীর্ঘ সময়ের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির সুন্দর দৃষ্টান্ত হয়ে আছে চাঁদপুর জেলা। এ জেলার ষাটনল থেকে মোহনা পর্যন্ত বহমান মেঘনা নদীকে বিশ্বের অন্যতম বড় নদী হিসেবে গণ্য করা হয়। মেঘনার সে অপরূপ দৃশ্য ও হিমেল পরশ পেতে ঘুরে আসুন দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের জেলা চাঁদপুর থেকে।

যা দেখবেন

মেঘনার পাশাপাশি চাঁদপুরের পদ্মা, ডাকাতিয়া, গোমতী, ধনাগোদা, মতলব, উধামধি ও চারাতভোগ নদীর আবেদনও কম নয়। এতগুলো নদীর সম্মিলন আর কোনো জেলায় একসঙ্গে খুঁজে পাওয়া যায় না। নদীর পাশাপাশি আরও দেখতে পাবেন ইলিশ চত্বর, চাঁদপুর চিড়িয়াখানা, মৎস্য জাদুঘর বা গবেষণা কেন্দ্র, বোটানিক্যাল গার্ডেন, শিশু পার্ক, ফাইভ স্টার পার্ক, বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম হাজীগঞ্জ বড় মসজিদ, গুরুর চর, পর্তুগিজ দুর্গ, সাহেবগঞ্জ প্রভৃতি।

যেভাবে যাবেন

চাঁদপুর ভ্রমণে নদীপথের বাইরে চিন্তা না করাই ভালো। আরামদায়ক ভ্রমণের জন্য নদীপথে রওনা দিতে পারেন। রাজধানীর সদরঘাট থেকে প্রতিদিন বেশ কয়েকটি লঞ্চ চাঁদপুরের উদ্দেশে ছেড়ে যায়। এছাড়া দক্ষিণাঞ্চলের জেলামুখী প্রায় সব লঞ্চই চাঁদপুর হয়ে যায়। ঢাকা থেকে চাঁদপুর অথবা চাঁদপুর থেকে ঢাকা চলাচলকারী নানা লঞ্চের মধ্যে এমভি সোনার তরী, এমভি ঈগল ১ ও ২, এমভি নিউ আল-বোরাক, এমভি বোগদাদিয়া ৮ ও ৯, এমভি শম্পা, এমভি রফরফ, এমভি আব-এ জমজম, এমভি মেঘনারানী, এমভি মিতালী, এমভি ইমাম হাসান, ময়ূর ১ ও ২ প্রভৃতি উন্নতমানের। সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত চলাচল করে এসব লঞ্চ।

যেখানে থাকবেন

ঘোরাঘুরি শেষে থাকার জন্য পেয়ে যাবেন অনেক আবাসিক হোটেল। এর মধ্যে হাজীগঞ্জ রেস্টুরেন্ট, তাজমহল আবাসিক বোর্ডিং, গাজী আবাসিক বোর্ডিং, ভাই ভাই হোটেল, অতিথি, মদিনা, রজনীগন্ধা, সুন্দরবন, সুগন্ধা, সোহাগ, শ্যামলী, প্রিন্স, মজুমদার, ফেরদৌসী, আল-আরাফাত, আজমেরী, স্টার, আকবরী, হাজীগঞ্জ রেস্ট হাউজ প্রভৃতি গুণগতমানে এগিয়ে। খাবারের জন্য যেতে পারেন গ্রিন হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট, আল-হেলাল রেস্তোরাঁ, ক্যাফে কর্নার, ক্যাফে সৌদিয়া, মুসলিম রেস্তোরাঁ, রুটি রেস্তোরাঁ, আজিজিয়া হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট, শরীফ রেস্তোরাঁ, আনন্দ রেস্তোরাঁ, সুনন্দা কেবিন, জনতা রেস্টুরেন্ট, চাঁদপুর হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট প্রভৃতিতে।