কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

১১ কোম্পানির প্রান্তিক প্রতিবেদন প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: চলতি হিসাববছরের ৩১ মার্চ ২০২০ সমাপ্ত অনিরীক্ষিত প্রান্তিক প্রতিবেদন (জানুয়ারি-মার্চ, ২০২০) প্রকাশ করেছে ১১ কোম্পানি। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ন্যাশনাল ফিড মিল লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ছয় পয়সা (লোকসান), যা আগের বছর একই সময় ছিল ২৬ পয়সা। এছাড়া ২০২০ সালের ৩১ মার্চ তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ১২ টাকা ৭৫ পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩০ জুনে ছিল ১২ টাকা ৭১ পয়সা।

সি পার্ল বিচ রিসোর্ট অ্যান্ড স্প্যা লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ৯ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ২৬ পয়সা। এছাড়া ২০২০ সালের ৩১ মার্চ তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ১০ টাকা ৫০ পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩০ জুনে ছিল ১০ টাকা ৬৬ পয়সা।

এইচআর টেক্সটাইল লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ৪৩ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ৫৪ পয়সা। এছাড়া ২০২০ সালের ৩১ মার্চ তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ৪৪ টাকা ২১ পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩০ জুনে ছিল ৪৩ টাকা ৪০ পয়সা।

আইটি কনসালট্যান্টস লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ৩১ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ৩৩ পয়সা। এছাড়া ২০২০ সালের ৩১ মার্চ তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ১৫ টাকা ৭৭ পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩০ জুনে ছিল ১৫ টাকা ২১ পয়সা।

প্রাইম টেক্সটাইল স্পিনিং মিলস লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে এক পয়সা (লোকসান), যা আগের বছর একই সময় ছিল ২১ পয়সা। এছাড়া ২০২০ সালের ৩১ মার্চ তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ৭৪ টাকা ১৯ পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩০ জুনে ছিল ৪৮ টাকা ৫৪ পয়সা।

আনলিমাইয়ার্ন ডায়িং লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ১৩ পয়সা (লোকসান), যা আগের বছর একই সময় ছিল ২৫ পয়সা। এছাড়া ২০২০ সালের ৩১ মার্চ তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ১০ টাকা ৬৭ পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩০ জুনে ছিল ১১ টাকা শূন্য পাঁচ পয়সা।

কাসেম ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ১০ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ১১ পয়সা। এছাড়া ২০২০ সালের ৩১ মার্চ তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ৩১ টাকা ২৬ পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩০ জুনে ছিল ৩১ টাকা শূন্য এক পয়সা।

সালভো কেমিক্যাল লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে চার পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ১৫ পয়সা। এছাড়া ২০২০ সালের ৩১ মার্চ তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ১২ টাকা ৪৩ পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩০ জুনে ছিল ১২ টাকা ১৫ পয়সা।

ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ৩১ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ১৫ পয়সা। এছাড়া ২০২০ সালের ৩১ মার্চ তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ১৭ টাকা দুই পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩১ মার্চে ছিল ১৬ টাকা ৯৩ পয়সা।

নিটল ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ৮১ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ৮০ পয়সা। এছাড়া ২০২০ সালের ৩১ মার্চ তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ২৬ টাকা ৭০ পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩১ মার্চে ছিল ২৪ টাকা ৯৭ পয়সা।

আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ৯ পয়সা (লোকসান), যা আগের বছর একই সময় ছিল ১৬ পয়সা (লোকসান)। এছাড়া ২০২০ সালের ৩১ মার্চ তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ১৭ টাকা দুই পয়সা (লোকসান), যা ২০১৯ সালের ৩১ মার্চে ছিল ১৬ টাকা ৬৩ পয়সা (লোকসান)।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..