বিশ্ব সংবাদ

২০১৩ সালের পর সর্বনিম্ন প্রবৃদ্ধি জার্মানির

শেয়ার বিজ ডেস্ক: বিদায়ী ২০১৯ সালে জার্মানির প্রবৃদ্ধি শূন্য দশমিক ছয় শতাংশ হয়েছে বলে দেশটির সরকারি পরিসংখ্যানে উঠে এসেছে। ২০১৩ সালের পর ইউরোপের শীর্ষ অর্থনীতির এটিই সবচেয়ে নিম্ন প্রবৃদ্ধি হওয়ার ঘটনা। জার্মানির পরিসংখ্যান দপ্তর জানিয়েছে, দেশটির প্রবৃদ্ধি মূলত চালিত হয়েছে গৃহস্থালির ব্যয়ের ওপর নির্ভর করে। খবর: বিবিসি।

প্রকাশিত তথ্যে জানা গেছে, দেশটির যন্ত্রপাতি ও সরঞ্জাম খাতে বিনিয়োগ কমেছে। রপ্তানি বাড়লেও তা আগের বছরের তুলনায় ছিল কম। নির্মাণ বাদে শিল্পের উৎপাদন কমে গেছে শূন্য দশমিক পাঁচ শতাংশ। অবশ্য বছরের শেষ প্রান্তিকের পূর্ণাঙ্গ তথ্য এখনও প্রকাশ করেনি পরিসংখ্যান দফতর।

পূর্ণ তথ্য প্রকাশ করা না হলেও বিদ্যমান তথ্যের আলোকেই জার্মানির অর্থনীতির সার্বিক বিষয়ে ধারণা পাওয়া যাচ্ছে। বিশ্লেষকরা জানিয়েছেন, গত বছরের শেষ তিন মাসে জার্মানির প্রবৃদ্ধি হয়েছে শূন্য দশমিক এক শতাংশ থেকে শুরু করে শূন্য দশমিক দুই শতাংশের মধ্যে। ফলে তৃতীয় প্রান্তিকের প্রবৃদ্ধি ছিল নিম্নমুখী। এছাড়া শেষ তিন মাসে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডেও শিথিলতা চলে আসে।

এর আগের কোয়ার্টারগুলোর তথ্যও খুব একটা সন্তোষজনক ছিল না। সার্বিকভাবে খুব সামান্যের জন্য মন্দা কাটাতে সক্ষম হয় জার্মানি। তবে প্রকাশিত তথ্যের আলোকে ইউরোপের বৃহৎ অর্থনীতিটি প্রবৃদ্ধি শক্তিশালী করতে রীতিমতো হিমশিম খাচ্ছে বলে মনে করা হচ্ছে।

বিশ্বের গাড়ি রফতানির দিক থেকে শীর্ষস্থানীয় দেশ জার্মানি। বড় দুই অর্থনীতি যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের পরই দেশটির অবস্থান। যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর থেকেই ধুঁকছে দেশটির অর্থনীতি। ফলে গত বছর জার্মানির রপ্তানি বেড়েছে মাত্র শূন্য দশমিক ৯ শতাংশ, যা প্রত্যাশার তুলনায় অনেক কম। সেবা ও নির্মাণ খাতেও প্রবৃদ্ধি উচ্চ হয়েছে, তবে সংকুচিত হয়েছে শিল্প খাত।

জার্মানির পরিসংখ্যান দপ্তর জানিয়েছে, গাড়ি তৈরি শিল্প থেকে আশানুরূপ ফল না আসা প্রবৃদ্ধি কম হওয়ার পেছনে ভূমিকা রেখেছে। দেশটিতে জনপ্রতি অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড বৃদ্ধি পেয়েছে মাত্র শূন্য দশমিক এক শতাংশ। তবে চাকরিজীবীদের ক্ষেত্রে প্রকৃত হার কমেছে শূন্য দশমিক তিন শতাংশ। অবশ্য নিম্ন প্রবৃদ্ধি হলেও জার্মানিতে কর্মসংস্থান বৃদ্ধির ধারা অব্যাহত রয়েছে। তবে নতুন চাকরিক্ষেত্র তৈরির হার কিছুটা কমেছে। কম বেকারত্বের হারের দিক থেকে বিশ্বের সবচেয়ে অগ্রগামী দেশ জার্মানি মাত্র তিন দশমিক এক শতাংশ।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..