প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

২০১৭ সালে রাশিয়ায় জ্বালানি পণ্য উৎপাদন কমবে

 

শেয়ার বিজ ডেস্ক: জ্বালানি তেলের মান উন্নয়নের লক্ষ্যে শোধনাগারগুলো আধুনিকায়নের কাজ চলায় আগামী বছর রাশিয়ায় জ্বালানি পণ্য উৎপাদন আড়াই শতাংশ কমতে পারে। দেশটির উপ-জ্বালানিমন্ত্রী কিরিল মলদসভ এক বিবৃতিতে এ আশঙ্কা প্রকাশ করেন।

২০১১ সালে তেল উৎপাদনকারীরা ও সরকার রাশিয়ার শোধনাগার আধুনিকায়নে ৫০ বিলিয়ন ডলারের একটি চুক্তি করে। এসব শোধনাগার ১৯৪০ থেকে ১৯৭০ সালের মধ্যে প্রতিষ্ঠিত।

আধুনিক শোধনাগারের অভাবে ২০১১ সালে রাশিয়ায় গ্যাসোলিন সরবরাহ সংকটে পড়ে। দেশটির তৃতীয় প্রেসিডেন্সিয়াল নির্বাচনে অনেক ভোটার এ কারণে ভøাদিমির পুতিনের ওপর ক্ষুব্ধ ছিল।

কিরিল মলদসভ  বিবৃতিতে জানান, ২০১৬ সালে রাশিয়া মোট ২৭৭ মিলিয়ন টন তেলজাত পণ্য উৎপাদন করবে। আগামী বছর এ উৎপাদন কমে ২৭০ মিলিয়ন টনে নেমে আসবে বলে তিনি পূর্বাভাস দেন।

তিনি বলেন, শোধনাগার উন্নয়নের কাজের জন্য উৎপাদন কমবে। তবে এ কারণে জ্বালানি ঘাটতির কোনো আশঙ্কা নেই, কারণ শোধনাগারের অতিরিক্তি প্ল্যান্টে কাজ চলছে।

তিনি জানান, ২০১৭ সালে ৩৯ দশমিক ৮ মিলিয়ন টন গ্যাসোলিন ও ৭০ মিলিয়ন টন ডিজেল উৎপাদনের প্রত্যাশা করা হচ্ছে। আগামী জানুয়ারিতে রফতানি শুল্ক বাড়াবে রাশিয়া। ফলে দেশটির জ্বালানি তেল উৎপাদন ২ মিলিয়ন টনের বেশি কমতে পারে।