Print Date & Time : 17 April 2021 Saturday 1:25 am

২০২১-২২ অর্থবছরের জন্য বাজেট প্রস্তাবনা চেয়েছে এনবিআর

প্রকাশ: February 19, 2021 সময়- 12:07 am

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামী ২০২১-২২ অর্থবছরের রাজস্ব আহরণ কার্যক্রমকে অধিকতর অর্থবহ, বিশ্লেষণধর্মী ও প্রতিনিধিত্বশীল করার অংশ হিসেবে বাজেট প্রস্তাবনা চেয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। দেশের করদাতা বিভিন্ন শিল্প ও বণিক সমিতি, ট্রেড অ্যাসোসিয়েশন, পেশাজীবী সংগঠন, গবেষণা প্রতিষ্ঠান, দেশের বুদ্ধিজীবীসহ সব মহলের কাছে প্রস্তাবনা চেয়েছে। গতকাল এনবিআরের জনসংযোগ কর্মকর্তা সৈয়দ এ মুমেন সই করা বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘সরকারের রাজস্ব আহরণ বাজেট প্রণয়নে এনবিআর রাজস্ব নীতিমালা প্রস্তুত করে থাকে। এ লক্ষ্যে একটি অংশগ্রহণমূলক, গণমুখী, শিল্প, ব্যবসা ও করদাতাবান্ধব এবং রাজস্ব সম্ভাবনাময় সুষম বাজেট প্রণয়নে বরাবরই সব পর্যায়ের করদাতা বিভিন্ন শিল্প ও বণিক সমিতি, ট্রেড

অ্যাসোসিয়েশন, পেশাজীবী সংগঠন, গবেষণা প্রতিষ্ঠান ও দেশের বুদ্ধিজীবী মহলের কাছ থেকে এনবিআর বাজেট প্রস্তাব আহ্বান এবং তাদের সঙ্গে রাজস্ব আহরণ পদ্ধতি সম্পর্কে আলোচনা অনুষ্ঠান করে আসছে। আসন্ন ২০২১-২২ অর্থবছরের রাজস্ব আহরণ কার্যক্রমকে অধিকতর অর্থবহ, বিশ্লেষণধর্মী ও প্রতিনিধিত্বশীল করার জন্য এনবিআর আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে বাজেট প্রণয়নে আগ্রহী।’

আরও বলা হয়, ‘বাজেট প্রস্তুতে সহায়তার লক্ষ্যে বিভিন্ন চেম্বার এবং অ্যাসোসিয়েশনকে তাদের স্ব স্ব বাজেট প্রস্তাব দি ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) কাছে লিখিতভাবে আগামী ৮ মার্চের মধ্যে প্রেরণ করার জন্য অনুরোধ করা হলো। একই সঙ্গে প্রস্তাবের আরেকটি সফটকপি ই-মেইল হনৎনঁফমবঃ২০২১Ñমসধরষ.পড়স-এর মাধ্যমে মো. গোলাম কবীর, প্রথম সচিব (কর আপিল ও অব্যাহতি) ও প্রধান বাজেট সমন্বয়কারী, এনবিআর বরাবরে প্রেরণের জন্য অনুরোধ করা হলো।’

‘এনবিআরপ্রাপ্ত প্রস্তাবসমূহ গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করবে। যে সব প্রতিষ্ঠান, সংস্থা বা দপ্তর কোনো চেম্বার বা অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য নয় তারাও সরাসরি এই ই-মেইলের মাধ্যমে বাজেট প্রস্তাব প্রেরণ করতে পারবেন।’-বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

এর আগে ১৬ ফেব্রুয়ারি আলাদা আলাদাভাবে বাজেট প্রস্তাবনা চেয়ে (কাস্টমস, ভ্যাট ও আয়কর) সরকারি প্রতিষ্ঠান, ব্যাংক ও ব্যবসায়ী সংগঠনগুলোকে চিঠি দেয় এনবিআর। এর মধ্যে এনবিআরের পরামর্শক কমিটির সদস্যভুক্ত সংস্থা ও প্রতিষ্ঠান (১২০টি ব্যবসায়ী সংগঠন), বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সচিব, সংস্থার প্রধান, এনবিআর সদস্য, বাংলাদেশ ব্যাংক, বিভিন্ন সংস্থা।