Print Date & Time : 10 July 2020 Friday 1:11 pm

২৩টি ফেডারেশনের জন্য বিসিবির ৫০ লাখ

প্রকাশ: মে ২১, ২০২০ সময়- ০৩:০৬ এএম

ক্রীড়া প্রতিবেদক: করোনাভাইরাসে প্রভাবে জীবনযাত্রা অনেকটাই থমকে আছে। কাজ বন্ধ। বন্ধ খেলার জগতও। এ অবস্থায় গৃহবন্ধী ক্রীড়াবিদরা। এ অবস্থায় বিপাকে রয়েছেন নিম্মবিত্ত খেলোয়াড়রা। এমন সময়ে তাদের পাশে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও (বিসিবি)।

 ২৩টি ফেডারেশনের জন্য যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়কে ৫০ লাখ ১০ হাজার টাকা দিয়েছে বিসিবি। বুধবার ১০ হাজার টাকার ৫০১টি চেক সংশ্লিষ্ট ফেডারেশনগুলোর হাতে তুলে দেয় মন্ত্রণালয়। এরমধ্যে ১০ লাখ টাকা দেওয়া হয় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনকে। ৫ লাখ টাকা পেল বাংলাদেশ হকি ফেডারেশন। বাংলাদেশ তায়কোয়ান্দো পেয়েছে ৩ লাখ টাকা। ন্যাশনাল প্যারা অলিম্পিক কমিটি অব বাংলাদেশ, বাংলাদেশ রাগবি ফেডারেশন, বাংদেশ বধির স্পোর্টস ফেডারেশনসহ আরও কিছু ফেডারেশন পেয়েছে আর্থিক সহায়তা।

জাতীয় ক্রীড়া পরিষদে বুধবার ফেডারেশনগুলোর মনোনীত খেলোয়াড়দের হাতে চেক তুলে দেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। তিনি এ সময় বলেন, ‘সব ফেডারেশন ও খেলোয়াড়দের আশ্বস্ত করতে চাই, আমাদের মানবিক এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। আমরা ইতিমধ্যে খেলোয়াড়দের সহায়তা করার লক্ষ্যে অর্থ মন্ত্রণালয়ে পত্র প্রেরণ করেছি। উনারা আমাদের আশ্বস্ত করেছেন। আশা করছি, ঈদের পরে আরও অধিক সংখ্যক খেলোয়াড়কে সহযোগিতা করতে পারব।’

এদিকে করোনাভাইরাস তহবিলের জন্য নিজেদের ঐতিহাসিক ব্যাট নিলামে তুলেন সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম। বিশ্বকাপে ঝড় তোলা সাকিবের ব্যাট বিক্রি হয় ২০ লাখ টাকায়। মুশফিক যে ব্যাটে দেশের হয়ে টেস্টে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি করেন সেটি ১৭ লাখ টাকায় কিনেছেন পাকিস্তানের ক্রিকেটার শহিদ আফ্রিদি।

নিলামে অংশ না নিলেও সাকিব-মুশফিকের ইতিহাস গড়া ব্যাট ফিরিয়ে আনতে চায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। বুধবার সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন  বলেন, ‘আমি অবশ্যই উদ্যোগ নেব। এখন এখানে তো আমরা নিলামে অংশ পারি না। পরে আমরা চেষ্টা করব কীভাবে রাখা যায়। যদি সুযোগ থাকে, সেগুলোকে ফেরত আনার চেষ্টা করব।’