দিনের খবর প্রথম পাতা

২৯ মে পর্যন্ত বন্ধ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

নিজস্ব প্রতিবেদক: এক বছরের বেশি সময় ধরে বন্ধ থাকা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দেয়ার কথা ছিল ২৪ মে থেকে। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে কভিড-১৯ সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে দেশের সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চলমান ছুটি আগামী ২৯ মে পর্যন্ত বাড়িয়েছে সরকার। গতকাল শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা এমএ খায়ের এ তথ্য জানান।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বে অতি সম্প্রতি চলমান কভিড-১৯ মহামারিতে সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি পরিলক্ষিত হওয়ায় শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মচারী ও অভিভাবকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও সার্বিক নিরাপত্তা বিবেচনায় এবং কভিড-১৯-সংক্রান্ত জাতীয় পরামর্শক কমিটির সঙ্গে পরামর্শক্রমে দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান ছুটি আগামী ২৯ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

এ সময় অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে এবং শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

করোনা সংক্রমণের কারণে সব সরকারি-বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কিন্ডারগার্টেন এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটিও ২৯ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

ছুটিতে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে এবং শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন বলে আলাদা বিজ্ঞপ্তিতে জানায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

করোনা সংক্রমণ কমে আসায় আগামী ৩০ মার্চ স্কুল-কলেজ এবং ২৪ মে বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। পরে স্কুল-কলেজের ছুটি ২২ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ও এই মুহূর্তে খোলা হচ্ছে না। আগে যেহেতু স্কুল-কলেজ খোলার কথা ছিল, সেজন্য স্কুল-কলেজের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেয়া হলো। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেয়া হবে।

গত বছর ৮ মার্চ দেশে করোনা সংক্রমণের পর ১৮ মার্চ থেকে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এ সময় অনলাইনে ও সংসদ টিভিতে শ্রেণি কার্যক্রম চালু রাখে সরকার।

এদিকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ছুটির আওতায় রয়েছে কওমি মাদরাসাগুলোও। দেশের সব কওমি মাদরাসা আগামী ২৯ মে পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। গতকাল এক বিজ্ঞপ্তিতে এ নির্দেশনা দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন
ট্যাগ ➧

সর্বশেষ..