কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

২% নগদ লভ্যাংশ দেবে সমতা লেদার

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২০১৯ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে দুই শতাংশ বোনাসের পরিবর্তে নগদ লভ্যাংশ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে সমতা লেদার কমপ্লেক্স লিমিটেড। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, চামড়াশিল্প খাতের কোম্পানি সমতা লেদার কমপ্লেক্স লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ এর আগে দুই শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিল, কিন্তু বোনাস লভ্যাংশ দেওয়ার ক্ষেত্রে কোম্পানিটির নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। আর লোকসান থাকা সত্ত্বেও নগদ লভ্যাংশ দেওয়ার সুযোগ দিয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। দুই শতাংশ বোনাসের পরিবর্তে দুই শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ।আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৮ পয়সা। আর ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১৪ টাকা ৬১ পয়সা। এছাড়া ওই সময়ে শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে ৩৬ পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের অনুমোদনের জন্য আগামী ২৪ ডিসেম্বর, সকাল সাড়ে ১০টায়, রাজধানীর হাজারীবাগের অবস্থিত কারখানা প্রাঙ্গণে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া চলতি হিসাববছরের প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর, ২০১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে কোম্পানিটি। প্রথম প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ৫ পয়সা, আগের বছর একই সময় ছিল ৪ পয়সা (লোকসান)। অর্থাৎ এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় ৯ পয়সা বেড়েছে। এছাড়া ২০১৯ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য হয়েছে ১৪ টাকা ৬৩ পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩০ জুনে ছিল ১৪ টাকা ৬১ পয়সা। আর এ প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে ১৮ পয়সা। আগের বছর একই সময় ছিল তিন পয়সা।

এদিকে গতকাল ডিএসইতে কোম্পানিটির শেয়ারদর ৮ দশমিক শূন্য পাঁচ শতাংশ বা ১১ টাকা ১০ পয়সা বেড়ে প্রতিটি শেয়ার সর্বশেষ ১৪৯ টাকায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ১৪৮ টাকা। দিনজুড়ে এক লাখ ৭৮ হাজার ৮০৫টি শেয়ার ৮৮৮ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর দুই কোটি ৬৮ লাখ চার হাজার টাকা। দিনভর শেয়ারদর সর্বনি¤œ ১৪৩ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১৫১ টাকা ৬০ পয়সায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে শেয়ারদর ৪৬ টাকা ১০ পয়সা থেকে ১৫১ টাকা ৬০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করে।

কোম্পানির ৫০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ১০ কোটি ৩২ লাখ টাকা। চামড়াশিল্প খাতের এ কোম্পানিটি ১৯৯৮ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে বর্তমানে ‘জেড’ ক্যাটেগরিতে অবস্থান করছে। কোম্পানির মোট এক কোটি তিন লাখ ২০ হাজার শেয়ার রয়েছে। মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের হাতে ৩০ দশমিক ২৪ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক তিন দশমিক ৯৮ শতাংশ ও বাকি ৬৫ দশমিক ৭৮ শতাংশ শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..