দিনের খবর প্রচ্ছদ শেষ পাতা

৪জি ও ৫জি নেটওয়ার্ক আপ গ্রেডেশন করছে টেলিটক

সংসদে প্রধানমন্ত্রী

শেয়ার বিজ ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, গ্রামপর্যায়ে ও প্রত্যন্ত এলাকায় মানসম্পন্ন ভয়েস এবং মোবাইল ব্রডব্যান্ড পরিষেবা দিতে রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল ফোন অপারেটর টেলিটক বিভিন্ন নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ, আপ-গ্রেডেশন ও আধুনিকায়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

তিনি বলেন, ‘অন্যান্য চলমান প্রকল্পের পাশাপাশি ৫জি সুবিধা সম্প্রসারণের প্রাকপ্রস্তুতির অংশ হিসেবে টেলিটকের কোর/ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক আধুনিকীকরণ-সংক্রান্ত একটি নতুন প্রকল্প গ্রহণ করা হচ্ছে।’

সংসদ নেতার প্রশ্নোত্তর অধিবেশনে কুড়িগ্রাম ১ আসনের সংসদ সদস্য মো. আসলাম হোসেন সওদাগরের উত্থাপিত প্রশ্নের জবাবে সংসদে তিনি এ কথা বলেন। একাদশ জাতীয় সংসদের একাদশ অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

শেখ হাসিনা বলেন, ৫জি পরিষেবার জন্য গ্রামপর্যায়ে টেলিটক নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ ও আধুনিকায়নে ২০২৩ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর নাগাদ নতুন প্রকল্প বাস্তবায়ন হবে।

তিনি বলেন, পাশাপাশি ৩জি প্রযুক্তি চালু এবং ২.৫জি নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ (ফেজ ২) প্রকল্পের অধীনে ২জি পরিষেবার জন্য ৫৪০টি সাইটে বেস ট্রান্সসিভার স্টেশন (বিটিএস), ১৬৭১ সাইটে ৩জি নোডবি এবং ২০৩৫টি সাইটে ৪জি ইনোডবি স্থাপন চলতি বছরের ৩০ জুন নাগাদ সম্পন্ন হবে।

তিনি আরও বলেন, হাওর, জলাশয়, দ্বীপ এবং ছিটমহল অঞ্চলে মোবাইল ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সুবিধা সম্প্রসারণের জন্য ৪০০টি নতুন বিটিএস বসানো চলতি বছরের ডিসেম্বর নাগাদ শেষ হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের দক্ষিণাঞ্চলে বিশেষ করে বাগেরহাট, ভোলা, বরগুনা, খুলনা, লক্ষ্মীপুর, নোয়াখালী, পটুয়াখালী, পিরোজপুর এবং সাতক্ষীরা জেলায় সৌর বিদ্যুৎভিত্তিক ৪০০ বিটিএস স্থাপনের পাশাপাশি ২.৫জি এবং ৪জি সুবিধা তৈরির কাজ চলতি বছরের অক্টোবর নাগাদ সম্পন্ন হবে।

তিনি বলেন, এছাড়াও উপকূল, বন, পার্বত্য এলাকা এবং প্রত্যন্ত অঞ্চলে ৪০০ নতুন বিটিএস (২জি/৩জি/৪জি) স্থাপন করা হবে পাশাপাশি সোশ্যাল অবলিগেটরি ফান্ডের (এসওএফ) অধীনে বিদ্যমান ১৫০০ সাইটে ৪জি সেবা সুবিধা সংযুক্ত করার কাজ ২০৩৪ সালের ফেব্রুয়ারি নাগাদ বাস্তবায়ন হবে।

শেখ হাসিনা বলেন, মুজিববর্ষ উপলক্ষে টেলিটক ‘শতবর্ষ’ নামে একটি নতুন প্যাকেজও চালু করেছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন
ট্যাগ ➧

সর্বশেষ..