শেষ পাতা

৪০ হাজার তরুণকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে: পলক

প্রতিনিধি, কুড়িগ্রাম: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, মুজিববর্ষে লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং প্রজেক্টে ১০০ সার্ভিসের মাধ্যমে ১০ কোটি মানুষ সুবিধা পাবে। এছাড়া এ বছর প্রধানমন্ত্রীর নতুন উপহার ‘স্টার্ট অব বাংলাদেশ’। যেখানে তরুণরা চাকরি না খুঁজে চাকরি দেবে, উদ্যোক্তা সৃষ্টি করবে।

গতকাল বিকালে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার বিলুপ্ত ছিটমহল দাসিয়ারছড়ায় দাসিয়ারছড়া বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে নির্মাণাধীন ডিজিটাল সার্ভিস এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড ট্রেনিং সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ৬৮ বছরের পিছিয়ে থাকা ছিটমহলের মানুষদের আইসিটি বিষয়ে প্রশিক্ষণ ও কর্মসংস্থানের জন্য এ ট্রেনিং সেন্টার মুজিববর্ষে উপহার দেওয়া হলো।

তিনি বলেন, মুজিববর্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে প্রযুক্তিনির্ভর বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নে ৪০ হাজার তরুণকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। এর মধ্যে কুড়িগ্রামে ৫০০ তরুণ লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্টের আওতায় প্রশিক্ষণ পাবে। আমাদের আইসিটি সেক্টরে ১০ লাখ তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান হয়েছে। এরই মধ্যে ছয় লাখ ফ্রিল্যান্সার কাজ করছে। সে সঙ্গে প্রায় দুই লাখ সফটওয়্যার টেকনোলজিতেও কাজ করছে। লক্ষাধিক ছেলেমেয়ে কল সার্ভিসে কাজ করছে। ৫০ হাজারেরও বেশি ছেলেমেয়ে ই-কমার্সে কাজ করছে।

ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুমা আরেফিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জিলুফা সুলতানা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেনহাজুল আলম, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. জাফর আলী, জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আমান উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু, ফুলবাড়ী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম রব্বানী সরকার, ফুলবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ প্রমুখ।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন
ট্যাগ ➧

সর্বশেষ..