প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

৫০০ কোটি টাকার বন্ড ইস্যু করবে এনসিসি ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক: ৫০০ কোটি টাকার বন্ড ইস্যু করার সিদ্ধান্তে নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংক খাতের প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল ক্রেডিট অ্যান্ড কমার্স ব্যাংক লিমিটেডের (এনসিসি ব্যাংক) পরিচালনা পর্ষদ। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, ‘এনসিসি ব্যাংক নন-কনভার্টেবল সাব অর্ডিনেটেড বন্ড-২’ ইস্যুর মাধ্যমে ৫০০ কোটি সংগ্রহ করবে এনসিসি ব্যাংক। মূলত বন্ড ছেড়ে যে অর্থ সংগ্রহ করা হবে তা মূলধন হিসেবে গণ্য হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের নীতিমালা অনুযায়ী ব্যাংকের ব্যাসেল-৩ কমপ্লায়েন্সের শর্তপূরণ সাপেক্ষে টায়ার-২ মূলধন হিসেবে এ অর্থ সংগ্রহ করা হবে। এর আগে গত বছরের ১৬ জুন ৭০০ কোটি টাকার বন্ড ইস্যু করবে বলে ডিএসইর মাধ্যমে স্টেকহোল্ডারদের জানিয়েছিল ব্যাংকটি। তবে চলতি বছরের ১২ এপ্রিল বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী ৭০০ কোটি টাকার পরিবর্তে ৫০০ কোটি টাকার বন্ড ইস্যু করবে বলে জানা গেছে। আর সম্প্রতি ৫০০ কোটি টাকার বন্ড ইস্যুর সিদ্ধান্তে ব্যাংকটির পরিচালনা পর্ষদ নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে।

উল্লেখ্য, ‘এ’ ক্যাটেগরির ব্যাংক খাতের কোম্পানিটি ২০০০ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। দুই হাজার কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন এক হাজার ১৬ কোটি ৮৭ লাখ টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ এক হাজার ৭৮ কোটি ৪৯ লাখ টাকা। কোম্পানিটির ১০১ কোটি ৬৮ লাখ ৭০ হাজার ৯৬৭ শেয়ার রয়েছে। মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা বা পরিচালকদের কাছে ৩৭ দশমিক ২৯ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে ২৩ দশমিক ০৮ শতাংশ, বিদেশি বিনিয়োগকারীদের কাছে শূন্য দশমিক ৪৭ শতাংশ এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে রয়েছে ৩৯ দশমিক ১৬ শতাংশ শেয়ার।

সর্বশেষ ৩১ ডিসেম্বর, ২০২১ সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ ১২ শতাংশ নগদ ও ৪ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দেয়ার ঘোষণা করে। আলোচিত সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ৪৬ পয়সা এবং ৩১ ডিসেম্বর, ২০২১ শেয়ারপ্রতি নেট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ২১ টাকা ৯৫ পয়সা। এছাড়া আলোচিত হিসাববছরে প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে এক টাকা ৫৬ পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের অনুমোদনের জন্য আজ ১১ আগস্ট বেলা ১২টায় ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে বার্ষিক সাধারণ সভার (এজিএম) আহ্বান জানিয়েছে।

এর আগে ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০ সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য কোম্পানিটি সাড়ে সাত শতাংশ নগদ ও সাড়ে সাত শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়েছে। আলোচিত সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ৩৬ পয়সা এবং ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০ শেয়ারপ্রতি নেট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ২২ টাকা ১৫ পয়সা।