কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

৫০০ কোটি টাকার বন্ড ছাড়বে পূবালী ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক: ব্যাংক খাতের কোম্পানি পূবালী ব্যাংক লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ ৫০০ কোটি টাকার পারপিচুয়াল বন্ড ইস্যুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, বাংলাদেশ ব্যাংকের নীতিমালা অনুযায়ী ব্যাংকের ব্যাসেল-৩ কমপ্লায়েন্সের শর্ত পূরণসাপেক্ষে অ্যাডিশনাল টায়ার-১ (এটি-১) মূলধন হিসেবে বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে এ অর্থ সংগ্রহ করা হবে। সংগৃহীত অর্থ ব্যাংক খাতের এ প্রতিষ্ঠানটির ব্যবসার প্রবৃদ্ধিতে সহায়তা করবে। বাংলাদেশ ব্যাংক, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এবং অন্যান্য নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনুমোদনক্রমে বিভিন্ন আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হওয়ার পর এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে বিনিয়োগকারীদের জন্য কোম্পানিটি ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। আলোচিত সময়ে শেয়ারপ্রতি (ইপিএস) হয়েছে দুই টাকা ১০ পয়সা এবং ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০ তারিখে শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ২৭ টাকা ৬২ পয়সা। এর আগে ২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে বিনিয়োগকারীদের জন্য কোম্পানিটি ১০ শতাংশ নগদ ও তিন শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। আলোচিত সময়ে ইপিএস হয়েছে তিন টাকা ৬৩ পয়সা এবং এনএভি দাঁড়িয়েছে ২৭ টাকা ২৫ পয়সা।

এদিকে গতকাল ডিএসইতে শেয়ারদর এক দশমিক ২২ শতাংশ বা ৩০ পয়সা বেড়ে প্রতিটি সর্বশেষ ২৪ টাকা ৯০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ২৪ টাকা ৭০ পয়সা। দিনজুড়ে এক লাখ ৬২ হাজার ৫৭৮ শেয়ার মোট ৮৪ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর ৩৯ লাখ ৭০ হাজার টাকা। দিনজুড়ে শেয়ারদর সর্বনি¤œ ২৪ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ২৪ টাকা ৯০ পয়সায় হাতবদল হয়। এক বছরে শেয়ারদর ১৯ টাকা ১০ পয়সা থেকে ২৬ টাকা ৮০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করে।

‘এ’ ক্যাটেগরির কোম্পানিটি ১৯৮৪ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। দুই হাজার কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন এক হাজার ২৮ কোটি ২৯ লাখ টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ এক হাজার ৮১১ কোটি ৯৩ লাখ টাকা। কোম্পানিটির মোট ১০২ কোটি ৮২ লাখ ৯৪ হাজার ২১৯ শেয়ার রয়েছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..