দিনের খবর

৬০ পৌরসভায় ভোট কাল

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের ৩৪ জেলার ৬০ পৌরসভায় কাল ভোট। ২১ লাখের বেশি ভোটার বেছে নেবেন তাদের মেয়র-কাউন্সিলরদের। এই ধাপে ২৯টি পৌরসভায় ভোট গ্রহণ হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন-ইভিএমের মাধ্যমে। এরই মধ্যে ৪টি পৌরসভায় মেয়র পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় প্রার্থীরা নির্বাচিত হয়েছেন। বাকি ৫৬ পৌরসভায় মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন ২শ ১০ প্রার্থী। আর ৬০ পৌরসভায় কাউন্সিলর পদে প্রার্থী ২ হাজার ৯শ ৫৬ জন। দেশের ৯টি রাজনৈতিক দল এই ধাপের নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন। সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে সার্বিক প্রস্তুতি সম্পন্ন হওয়ার কথা জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

প্রথম ধাপে ২৪ পৌরসভায় নির্বাচনের পর আগামীকাল দ্বিতীয় ধাপে ৬০ পৌরসভায় ভোট হবে। দ্বিতীয় ধাপে ৬১ পৌরসভায় তফসিল ঘোষণা ও পরবর্তীতে পূর্বে স্থগিত হওয়া গাজীপুরের শ্রীপুর পৌরসভা যুক্ত হলে মোট ৬২ পৌরসভার ভোট হবার কথা ছিলো। তবে, একজন মেয়র প্রার্থীর মৃত্যুতে নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌরসভার নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে আর পাবনার সুজানগর পৌরসভার ভোট পিছিয়ে দেয়া হয়েছে। এই ধাপে ২৯টি পৌরসভায় ভোট হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন-ইভিএমের মাধ্যমে। বাকি ৩১ পৌরসভায় ভোট হবে ব্যালট পেপারে। ভোটগ্রহণ সকাল ৮টায় শুরু হয়ে চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

নারায়নগঞ্জের তারাবো পৌরসভা, সিরাজগঞ্জের কাজীপুর পৌরসভা, পাবনার ভাঙ্গুড়া পৌরসভা ও পিরোজপুর পৌরসভায় মেয়র পদে একক প্রার্থী থাকায় তারা বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। বাকি ৫৬ পৌরসভায় মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন ২শ ১০জন। ৬০ পৌরসভায় সাধারণ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ২হাজার ২শ ৩২ জন আর সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৭শ ২৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। ৬০ পৌরসভায় ভোটার প্রায় সাড়ে ২১ লাখ।

আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ দেশের ৯টি রাজনৈতিক দল এই ধাপের নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন। এদিকে, সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হওয়ার কথা জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। ইসির সিনিয়র সচিব জানিয়েছেন, নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। বিএনপি প্রার্থীদের অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন তাদের সুষ্পষ্ট কোন অভিযোগ নেই।

পৌরসভাগুলোতে নির্বাচনী আচরণবিধি প্রতিপালনে বুধবার থেকে পাঁচ দিনের জন্য ম্যাজিষ্ট্রেট নিয়োগ করা হয়েছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..