দিনের খবর

৬ আসামির ডিএনএ’র নমুনা সংগ্রহ

এমসি কলেজে ধর্ষণ মামলায়

নিজস্ব প্রতিবেদক: সিলেট এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে দলবেঁধে গৃহবধূ ধর্ষণের ঘটনায় ছয় আসামির ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের উপ-পরিচালক হিমাংশু লাল রায়।

জানা যায়, আজ বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় কড়া পুলিশী প্রহরায় তাদেরকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে আনা হয়। বেলা দেড়টা পর্যন্ত তারা ওসিসিতে ছিল। নমুনা সংগ্রহের পর ফের তাদেরকে পুলিশ হেফাজতে রিমান্ডে নেয়া হয়। এই সময়ে তাদের ডিএনএ’র নমুনা সংগৃহ করা হয়। যাদের ডিএনএ সংগৃহ করা হয়েছে তারা হলেন, মামলার প্রধান আসামি সাইফুর রহমান, অর্জুন লস্কর, রবিউল ইসলাম, শাহ মাহবুবুর রহমান রনি, রাজন মিয়া ও আইনুদ্দিন। আসামিদের ডিএনএ নমুনার সাথে ধর্ষিতার ডিএনএ মিলিয়ে দেখা হবে।

উল্লেখ্য, গত ২৫ সেপ্টেম্বর এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে বেড়াতে আসা দম্পতির স্বামীকে আটকে রেখে রাত সাড়ে ৯টার দিকে কলেজ ছাত্রাবাসে নববধূকে ধর্ষণ করে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। এ ঘটনায় ৬ ছাত্রলীগ কর্মীর নামোল্লেখসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন ওই গৃহবধূর স্বামী।

মামলায় অভিযুক্তরা হলেন, এমসি কলেজ ছাত্রলীগ কর্মী সাইফুর রহমান, কলেজের ইংরেজি বিভাগের মাস্টর্সের ছাত্র শাহ মাহবুবুর রহমান রনি, মাহফুজুর রহমান মাছুম, অর্জুন লস্কর। এছাড়া বহিরাগত ছাত্রলীগ কর্মী রবিউল এবং তারেক আহমদকেও আসামি করা হয়েছে। এর সাথে অজ্ঞাত নামা আরো তিন জনকে আসামি করা হয় এ মামলায়।

এ পর্যন্ত মামলায় এজহারনামীয় ছয়জনসহ ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সবাইকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দিয়েছেন আদালত বলে জানান শাহপরাণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..