প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

রাজেশ খান্না

 

বলিউডের প্রথম সুপারস্টার রাজেশ খান্না। রোমান্টিক ছবিতে যার প্রতিদ্বন্দ্বী কেবল তিনি নিজেই। বলিউডে তাকে রোমান্সের দেবতা হিসেবে মানা হয়। এক্সপ্রেশন, বডি ল্যাঙ্গুয়েজ, ডায়ালগ ডেলিভারি সব কিছুতেই আলাদা স্টাইলের প্রচলন করেন রাজেশ খান্না। ১৯৬৯ থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত টানা ১৫টি হিট সিনেমা দিয়ে যে রেকর্ড তিনি তৈরি করেছেন, তা আজও অক্ষুন্ন । ১৯৬৬ সালে ‘আখেরি খাত’ দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করলেও ১৯৬৭ সালে ‘রাজ’ ছবির মাধ্যমে জনপ্রিয়তা পান। সেই শুরু এরপর কেবলই এগিয়ে যাওয়া। অমিতাভ বচ্চনের আলোতে আসার আগ পর্যন্ত তিনিই ছিলেন ভারতের প্রথম সুপারস্টার, যার মতো এত জনপ্রিয়তা বলিউডের দ্বিতীয় কোনো অভিনেতা আজ পর্যন্ত পাননি।

তার মাঝে কী এমন জাদু ছিল তা আজ পর্যন্ত কেউই আবিষ্কার করতে পারেননি। তবে পর্দায় তার ম্যাগনেটিক উপস্থিতি, ব্যতিক্রমী বাচনভঙ্গি, চলনভঙ্গিÑ স্পেশালি রোমান্টিক ছবিতে তার অসাধারণ এক্সপ্রেশনের সঙ্গে বাস্তবিক সাবলীল অভিনয় চলচ্চিত্রে সফলতার ক্ষেত্রে ব্যাপক ভূমিকা রেখেছে। শুধু ব্যবসাসফল ছবিতে অভিনয় করে সস্তা জনপ্রিয়তা ধরে রাখেননি তিনি। সমালোচকদের সন্তুষ্ট করার পাশাপাশি অনেক ছবিতে ক্ল্যাসিক অভিনয় প্রদর্শন করে নিজেকে সুঅভিনেতা হিসেবেও প্রমাণ করেছেন তিনি। ‘আনন্দ’ ছবিতে ক্যানসারে মৃত্যুপথযাত্রী তরুণ আনন্দের ভূমিকায় তার এপিক অভিনয় আনন্দ চরিত্রটিকে বলিউডের ইতিহাসের অন্যতম সেরা চরিত্রে পরিণত করেছে। এ ছাড়া ‘আরাধনা’, ‘কতি পাতনাগ’, ‘অমর প্রেম’, ‘দাগ’, ‘ইত্তেফাক’-এর মতো ছবিতে তার অসাধারণ পারফরম্যান্স আজও সিনেমাপ্রেমীদের মনে দাগ কেটে যায়। গুরু দত্তের ভক্ত রাজেশ খান্না নিজের সম্পর্কে ইন্টারভিউয়ে বলেন, ‘গু রহংঢ়রৎধঃরড়হং রহপষঁফব উরষরঢ় কঁসধৎ’ং ফবফরপধঃরড়হ ধহফ রহঃবহংরঃু, জধল কধঢ়ড়ড়ৎ’ং ংঢ়ড়হঃধহবরঃু, উবা অহধহফ’ং ংঃুষব ধহফ ঝযধসসর কধঢ়ড়ড়ৎ’ং ৎযুঃযস.’Ñ আর এ সবকিছু মিলিয়ে রাজেশ খান্না পৌঁছেছেন সাফল্যের এভারেস্টে এবং নিজেকে নিয়ে গেছেন এ লিজেন্ডদের কাতারে। ‘পদ্মভূষণ’ সম্মানে সম্মানিত রাজেশ খান্না কোনো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার না পেলেও তিনবার সেরা অভিনেতা হিসেবে ফিল্মফেয়ার জিতেছেন। এ ছাড়া ভারতের চলচ্চিত্রের সব থেকে বড় পুরস্কার দাদাসাহেব ফালকে সম্মানেও সম্মানিত হন তিনি। ১৯৭০-৮৭ সাল পর্যন্ত তিনি ছিলেন ভারতের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অভিনেতা।

উল্লেখযোগ্য সিনেমা: রাজ, আউরাত, আরাধনা, ইত্তেফাক, খামোশি, দ্য ট্রেন, আনন্দ, হাতি মেরা সাথী, দুশমন, অমর প্রেম, মেরা জীবন সাথী, দাগ, আজনবী, স্বর্গ, দর্দ, অবতার, আন্দাজ, মেহবুবা, ত্যাগ, নকরি ও বন্ধন।